চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বোলিং ফিটনেস ফিরে পেতে পেসারদের অপেক্ষা

দীর্ঘ চার মাসের করোনা বিরতি অস্বস্তিতে ফেলেছে পেস বোলারদের। বোলিং ফিটনেস ফিরে পেতেই লেগে যাচ্ছে লম্বা সময়। জাতীয় দলের অধিকাংশ পেসার অনুশীলনে ফিরলেও পুরনো ছন্দ ফিরে পাননি কেউই।

সবাই বোলিং করছেন ছোট রানআপে। মিরপুরে মোস্তাফিজ-শফিউলরা অপেক্ষায় ধীরে ধীরে ইনটেনসিটি বাড়িয়ে আগের অবস্থায় ফিরতে। সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে নিয়মিত ঘাম ঝরাচ্ছেন আবু জায়েদ রাহি। টেস্ট দলের এ পেসার নেটে বোলিং শুরু করলেও পুরোপুরি ছন্দ ফিরে পেতে আরেকটু সময় লাগবে বলে জানালেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘নিজেদের ফিটনেসের কথা বলতে গেলে মনে হচ্ছে ভালো, একটু উপরের লেভেলে যাচ্ছে। কারণ দুই সপ্তাহ আগে আমরা যখন অনুশীলন শুরু করি তখন মনে হচ্ছিল কী হবে? পরের দিকে যখন রানিং শুরু হল, ইনডোর-আউটডোর, এছাড়া আমাদের হিল রানিংয়ের ব্যবস্থা আছে, তখন মনে হল ফিটনেসটাও ভালো উন্নতি হচ্ছে। বোলিং ফিটনেসটা আসতে একটু দেরি হবে।’

বিজ্ঞাপন

চার বোলার বিসিবির ব্যবস্থাপনায় একক অনুশীলন করছেন। রাহি ছাড়াও তালিকায় আছেন ইবাদত হোসেন, খালেদ আহমেদ ও নাসুম আহমেদ। সিলেট ভেন্যুতে অনুশীলনের দারুণ সুযোগ-সুবিধায় উজ্জীবিত এ টাইগার পেসার।

‘আমরা চারজন আলাদা আলাদা সময়ে অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছি। গ্রাউন্ডসম্যানদের যখনই উইকেট দিতে বলেছি, তারা বৃষ্টির মাঝেও দিয়েছে। জিম ফ্যাসিলিটিজও ভালো, সব মিলিয়ে মাঠের যে পরিবেশ ও সুযোগ সুবিধা, আমার কাছে মনে হয় অসাধারণ।’