চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশ প্যানারোমায় ৯ সিনেমা, কখন কোথায়?

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে শুরু হলো ২০তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) বিকেলে উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক পর্দা উঠলো দেশের সবচেয়ে বড় চলচ্চিত্র উৎসবের। ৯ দিনব্যাপী এই চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হবে ৭০টি দেশের ২২৫টি সিনেমা। 

এর মধ্যে এশিয়ান ফিল্ম কম্পিটিশনে ২১টি, রেট্রোস্পেকটিভে ৫টি, ট্রিবিউটে ২টি, ওয়াইড অ্যাঙ্গেলে ৬টি, সিনেমা অব দ্য ওয়ার্ল্ডে ৪৭টি, উইমেন ফিল্মমেকারস সেকশনে ২৭টি, স্পিরিচুয়াল সেকশনে ২৯টি, চিলড্রেন ফিল্ম সেশনে ১৮টি, শর্ট অ্যান্ড ইনডিপেনডেন্ট ফিল্ম সেকশনে ৬১টি সিনেমা দেখানো হবে।

তবে দেশের দর্শকদের কাছে সবচেয়ে প্রতীক্ষিত বিভাগটি বাংলাদেশ প্যানোরমা। এবছর এই বিভাগে মোট ৯টি সিনেমা নির্বাচিত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এ শাখায় দেখা যাবে বাংলাদেশের বেশ কিছু আলোচিত ও নতুন ছবি। এরমধ্যে আছে নূরুল আলম আতিকের ‘লাল মোরগের ঝুঁটি’, প্রসূন রহমানের ‘ঢাকা ড্রিম’, সাইদুল আনাম টুটুলের ‘কালবেলা’, এন রাশেদ চৌধুরীর ‘চন্দ্রাবতী কথা’, শবনম ফেরদৌসীর ‘আজব কারখানা’ ইত্যাদি।

গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান মিলনায়তনে বাংলাদেশ প্যানারোমা শাখার সিনেমাগুলো দর্শক দেখতে পারবেন প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায়।

উৎসব শুরুর দিনে এই শাখার ‘বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন ও বাংলাদেশ’ সিনেমাটি দেখতে পারবেন। ১৬ জানুয়ারি সাইদুল আনাম টুটুলের ‘কালবেলা’, ১৭ জানুয়ারি আবিদ হাসান খানের ‘দ্য ম্যান হু ওয়ান্টস টু শেয়ার হিজ পারসোনাল ইমেইল উইথ ইউ’, ১৮ জানুয়ারি প্রসূন রহমানের ‘ঢাকা ড্রিম’, ১৯ জানুয়ারি নানজিবা খানের ‘দ্য আনওয়ান্টেড টুইন’, ২০ জানুয়ারি শবনম ফেরদৌসীর ‘আজব কারখানা’, ২১ জানুয়ারি নূরুল আলম আতিকের ‘লাল মোরগের ঝুঁটি’, ২২ জানুয়ারি এন রাশেদ চৌধুরীর ‘চন্দ্রাবতী কথা’ এবং উৎসবের শেষ দিন সন্ধ্যায় গোসে পরিচালিত ‘হল্ট’ দেখানো হবে।

বিজ্ঞাপন