চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘বাংলাদেশ প্যানারোমা’য় সেরা ছবি ‘ন ডরাই’

পর্দা নামলো রেইনবো ফিল্ম সোসাইটি আয়োজিত অষ্টাদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব…

রবিবার সন্ধ্যায় পর্দা নামলো ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের ১৮তম আসরের। আর এই উৎসবে ‘বাংলাদেশ প্যানারোমা’ বিভাগে সেরা ছবি নির্বাচিত হয়েছে গেল বছরের আলোচিত ছবি ‘ন ডরাই’।

৯ দিনব্যাপী  চলচ্চিত্রের এই উৎসবে দেখানো হয়েছে ৭৪টি দেশের ২২০টি ছবি। রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদের উদ্যোগে বরাবরের মতোই এবারের উৎসবেও এশিয়ান ফিল্ম প্রতিযোগিতা বিভাগ, রেট্রোস্পেকটিভ বিভাগ, বাংলাদেশ প্যানারোমা, সিনেমা অফ দ্য ওয়ার্ল্ড, চিল্ড্রেন ফিল্মস্, স্পিরিচুয়াল ফিল্মস, শর্ট অ্যান্ড ইন্ডিপেনডেন্ট ফিল্ম এবং উইমেন্স ফিল্ম মেকার বিভাগে চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়।

বিজ্ঞাপন

রবিবার (১৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় জাতীয় যাদুঘরের মূল মিলনায়তনে অতিথি, জুরি ও বিভিন্ন দেশ থেকে আসা নির্মাতা, প্রযোজকদের উপস্থিতিতে ঘোষণা করা হয় এবারের উৎসবে বিজয়ী ছবি, তথ্যচিত্র, নির্মাতা, অভিনেতা, অভিনেত্রী ও চিত্রগ্রাহকের নাম।

‘বাংলাদেশ প্যানারোমা’য় এ বছর দেখানো হয় মোট আটটি ছবি। এরমধ্যে বিচারকরা ‘ন ডরাই’ ছবিটিকে সেরা ছবি হিসেবে ঘোষণা করেন। ছবির নির্মাতা তানিম রহমান অংশু ও প্রযোজক রুহেলের হাতে পুরস্কার তুলে দেন মুফিদুল হক।

সামাজিক প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে এগিয়ে যাওয়ার গল্প নিয়ে স্টার সিনেপ্লেক্সের প্রথম প্রযোজিত ছবি ‘ন ডরাই’। ছবিটি দেখে প্রশংসা করছেন সাধারণ দর্শক।

গতানুগতিকতার বাইরে গিয়ে ভিন্নধর্মী সিনেমা নির্মাণের চ্যালেঞ্জ নিয়েছে স্টার সিনেপ্লেক্স। তার প্রথম নিদর্শন ‘ন ডরাই’। সার্ফিং নিয়ে নির্মিত দেশের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা চলচ্চিত্র এটি। ছবিটি পরিচালনা করেছেন তানিম রহমান অংশু। কক্সবাজারের এক তরুণ নারী সার্ফারের সত্যি জীবনের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে এ ছবি।

ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুনেহরা বিনতে কামাল। আরো আছেন সাঈদ বাবু, শরীফুল রাজসহ অনেকে। ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন দেবের ‘বুনোহাঁস’ ও ‘পিংক’ ছবির চিত্রনাট্যকার কলকাতার শ্যামল সেনগুপ্ত।