চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে বিশ্বের সেরা ভোগ্যপণ্যের প্রদর্শনী অ্যাম্বিয়েন্তে

বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভোগ্যপণ্যের প্রদর্শনী অ্যাম্বিয়েন্তে ফ্রাঙ্কফুর্টে। জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে আগামী ৮-১২ ফেব্রুয়ারি এ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। এর আয়োজন করছে বিশ্বের সবচেয়ে মেলা আয়োজক প্রতিষ্ঠান মেসে ফ্রাঙ্কফুর্ট।

মেসে ফ্রাঙ্কফুর্টের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

অ্যাম্বিয়েন্তে ফ্রাঙ্কফুর্ট হলো ভোগ্যপণ্য সামগ্রীর জন্য বিশ্বের সবচেয়ে বড় এবং পরিচিত আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ বছরের অ্যাম্বিয়েন্তে প্রদর্শনীতে থাকছে রান্নাঘর ও খাবার ঘরের সামগ্রী ছাড়াও ঘরের নানা জিনিস, উপহার সামগ্রী এবং ঘর সাজানোর নানা রকমের জিনিসের বিশাল সম্ভার থাকবে। এছাড়াও থাকবে ইন্টেরিওর ডিজাইন কনসেপ্ট এবং ফারনিশিং এর নানারকম উপকরণও।

এবারের প্রদর্শনীতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আগের চেয়েও বেশি দর্শনার্থী আসবে বলে ধারণা আয়োজকদের।

গত তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে এই অ্যাম্বিয়েন্তেতে। এই প্রদর্শনী দেখতে এসে বেশ কিছু নতুন প্রতিষ্ঠানও পাট এবং হস্তশিল্প নিয়ে কাজ শুরু করে বাংলাদেশের উদ্যোক্তারা। এই প্রদর্শনীতে প্রদর্শক সংখ্যায় এবং পণ্যের সমাহারে দক্ষিণ এশিয়াতে ভারতের পরেই বাংলাদেশের অবস্থান।

বিজ্ঞাপন

২০১৯ এর অ্যাম্বিয়েন্তে প্রদর্শনীতে ৪ হাজার ৪৬০ জন প্রদর্শক এবং পৃথিবীর ১৬৭টি দেশ থেকে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৮১ ক্রেতা ও দর্শনার্থী অংশ নিয়েছেন।

জার্মানি ছাড়া সর্বোচ্চ সংখ্যক দর্শনার্থী এসেছে চীন, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, ইটালি, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, নেদারল্যান্ড, তুরস্ক এবং যুক্তরাষ্ট্র থেকে।

অ্যাম্বিয়েন্তে অংশ নিয়ে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে যেসব প্রদর্শক
এবারের অ্যাম্বিয়েন্তে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন মোট ৩৪ জন প্রদর্শক। তারা হচ্ছে- প্যারাগন সিরামিক, শাইন পুকুর, পিপলস সিরামিক, মুন্নু সিরামিক, ফার সিরামিকস, সান ট্রেড, আরএফএল প্লাস্টিক পণ্যের স্টল প্রভৃতি। তারা নিজ উদ্যোগে মেলায় অংশ নিবে। এছাড়া প্রকৃতি, সৈয়দপুর এন্টারপ্রাইজ, আর্টিসান হাউজ, এসিক্স বিডি, অরণ্য ক্রাফটস অংশ নিবে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর আওতায়।

শাইন পুকুর, মুন্নু সিরামিক, ফার সিরামিকের মত প্রতিষ্ঠানের স্টলগুলো থাকবে হল ৬.১ (ডাইনিং) এ, যেখানে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের স্টল থাকবে যথাক্রমে ৪.২, ১০.৩, ১০.১, ১০.২, ১০.৪, ৯.৩ (গিভিং ও লিভিং) তাদের পণ্য প্রদর্শনীর জন্য।

আগামী অ্যাম্বিয়েন্তে ফ্রাঙ্কফুর্ট অনুষ্ঠিত হবে ভারতে। মার্চে অনুষ্ঠিত হবে এটি।

শেয়ার করুন: