চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রবাসীদের দোরগোড়ায় দূতাবাসের কনস্যুলার সেবা

কনস্যুলার সেবা প্রবাসীদের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সৌদির দাম্মামে কয়েক হাজার বাংলাদেশি অভিবাসীকে দূতাবাসের কনস্যুলার সেবা প্রদান করছে রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস।

সৌদি আরবের রাজধানী থেকে ৫‘শ কিলোমিটার অদূরে পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ দাম্মামের স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে আজ সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দূতাবাসের কনস্যুলার এ সেবা প্রদান করা হয়।

বিজ্ঞাপন

পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশের দাম্মামে লক্ষাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন। তীব্র শীত উপেক্ষা করেও কয়েকশত বাংলাদেশী অভিবাসী কনস্যুলার এ সেবা গ্রহণ করতে ছুটে আসেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুশাসন এবং রাষ্ট্রদূত ডক্টর মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম-বার এর নির্দেশনা মোতাবেক প্রবাসীদের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

এসময় অভিবাসীদের ইকামার মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য পাসপোর্ট নবায়ন, পাসপোর্ট রি-ইস্যু ও পাসপোর্ট সংক্রান্ত বিভিন্ন সেবা প্রদান করা হয়। এছাড়া যে সকল প্রবাসীরা নানা সমস্যার কারণে দেশে ফিরে যেতে চাচ্ছেন তাদের ট্র্যাভেল পারমিট প্রদান করা হয়। দূতাবাসের শ্রম উইংয়ের পক্ষ থেকে স্পেশাল এক্সিট প্রোগ্রামের আওতায় হূরুব প্রাপ্ত, ইকামা বিহীন ও এক্সিট ভিসায় মেয়াদ উত্তীর্ণ অভিবাসীদের আইনগত সহায়তা প্রদান করা হয়। এছাড়া প্রবাসী কল্যাণ কার্ডের জন্য নিবন্ধন করা হয়। দূতাবাসের সোনালী ব্যাংকের পক্ষ থেকে একাউন্ট খোলা ও ওয়েজ আর্নার্স বন্ড করার সেবা প্রদান করা হয়। প্রবাসীদের বৈধ পথে দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়।

সেবা গ্রহণ করতে আসা প্রবাসীদের নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সেবা প্রদান করা হয়। প্রবাসীদের সৌদি আরবের আইন কানুন ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সৌদি সরকারের নির্দেশনা মেনে চলার পরামর্শ দেয়া হয়।

দূতাবাসের মিনিস্টার ও কার্যালয় প্রধান ড. ফরিদ উদ্দিন আহমদ, কাউন্সিলর মোঃ হুমায়ূন কবির, শ্রম কাউন্সিলর মো: আসাদুজ্জামান, পাসপোর্ট ও ভিসা উইংয়ের কাউন্সিলর কাজী নুরুল ইসলাম, প্রথম সচিব (প্রেস) মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম ও সোনালী ব্যাংক প্রতিনিধি মোঃ জসীম উদ্দিন খান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অভিবাসীরা দূতাবাসের সেবা পেয়ে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বিজ্ঞাপন