চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পশ্চিমবঙ্গেও নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাস

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) প্রত্যাহার এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জির (এনআরসি) বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাস করেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা।

ভারতজুড়ে চলমান বিক্ষোভ-আন্দোলনের মুখে কেরালা, পাঞ্জাব, রাজস্থানের পর চতুর্থ রাজ্য হিসেবে সিএএ-বিরোধী প্রস্তাব পাস করলো রাজ্যটি।

বিজ্ঞাপন

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, তৃণমূল কংগ্রেস শাসিত এ রাজ্যে বিজেপির তীব্র বিরোধীতার মুখে বিধানসভায় সোমবার এ প্রস্তাব পাস করা হয়।

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বিধানসভায় এই প্রস্তাব পেশ করেন। বাম ও কংগ্রেস বিধায়করা এই প্রস্তাবে সংশোধনী আনার দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন

তবে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে সংশোধনী না আনার জন্য দু’দলের বিধায়কদের কাছে আর্জি জানানো হয়। প্রথম থেকেই প্রস্তাবের বিরোধিতা করে বিজেপি। পরে কন্ঠভোটে প্রস্তাবটি পাস হয়ে যায়।

প্রস্তাবে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন যে নাগরিকত্ব আইনের দ্বারা কোনও নাগরিকের নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া হবে না। কিন্তু এই আইনে তার কোনও উল্লেখ নেই। যা নাগরিকদের মধ্যে একটা বিভ্রান্তি তৈরি করছে। তাই রাজ্যে সরকারের মাধ্যমে কেন্দ্র সরকারের কাছে দাবি জানানো হচ্ছে, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন- সিএএ বাতিল এবং এনআরসি প্রত্যাহারের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

এই প্রস্তাবে আরও বলা হয়, সিএএ-র সাহায্যে কেন্দ্রের শাসক দল ধর্মের নামে দেশের মানুষের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করছে। মানবাধিকারকে ধ্বংস করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। ফলে পশ্চিমবঙ্গ-সহ দেশের প্রতিটি রাজ্যে চরম অস্থিরতা তৈরি হয়েছে।

গত ৬ সেপ্টেম্বর জাতীয় নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাস করে রাজ্য বিধানসভা। সেই প্রস্তাবে বলা হয়, এনআরসি-র তৈরির নামে বৈধ ভারতীয় নাগরিকদের হয়রানি করা হচ্ছে। এ রাজ্যে কোনও ভাবেই এনআরসি চালু করা যাবে না, সেই প্রস্তাবও গৃহীত হয়েছিল।