চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নেপালে সরকার ভেঙে দেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলির সরকার ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ প্রত্যাহারের দাবিতে কাঠমুণ্ডুতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে বিরোধীদলের হাজার হাজার কর্মী।

তাদের দাবি, ওলির সরকার ভেঙে দেওয়া এবং আগাম নির্বাচনের পদক্ষেপ থেকে সরে আসতে হবে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্ত অসাংবিধানিক বলেও দাবি করছে বিক্ষোভকারীরা।

গত ২০ ডিসেম্বর সকালে কেপি শর্মা ওলি মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকে বলেন, তারা সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছে। পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়া হোক।

বিজ্ঞাপন

তার এ সিদ্ধান্তের পর থেকেই বিরোধীরা বলছে, প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্ত অসাংবিধানিক।  তার এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা উচিত। নতুন বছরের প্রথম দিনে নেপালের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির নতুন অধিবেশন ডেকেছেন নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারি।

বিষয়টি গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত। বিরোধী নেতা পুষ্প কুমার দাহালের নেতৃত্বাধীন এনসিপি’র সদস্যরা নেপালের নির্বাচন কমিশনে গিয়ে দাবি করেছে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অনুসারে তাদের দল সরকার গঠনে বৈধ দল।

তবে নির্বাচন কমিশন তাদের সিদ্ধান্ত এখনও জানায়নি। পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার ওলির সিদ্ধান্ত এবং তাতে প্রেসিডেন্টের সম্মতিকে চ্যালেঞ্জ করে শীর্ষ আদালতে রিট পিটিশন দাখিল করে অভিযোগ করা হয়েছে।

অভিযোগ পাওয়ার পর নেপাল সুপ্রিম কোর্ট এই মামলা আদালতের সাংবিধানিক বেঞ্চে পাঠিয়েছে। মামলার পরবর্তী শুনানি আগামি ৬ জানুয়ারি।