চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নদীতে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম শেষ, আবার মাছ ধরবে জেলেরা

মোরশেদ আলম: মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম শেষে আজ থেকে আবার নদীতে মাছ ধরবে জেলেরা। ২২দিন নদী পাড়ে বসে থেকে অলস সময় কাটানো জেলে পাড়ায় উৎসব মুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।

এবছর চাঁদপুরের জেলেরা স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে এ কর্মসূচি সফল করতে সহায়তা করেছে। প্রশাসনও বিষয়টি স্বীকার করে বলছেন কিছু অসাধু জেলে নদীতে নামলেও কোনো ভাবেই তারা ছাড় পায়নি। অবাধ্য জেলেদের আটক করে অর্থদণ্ড ও কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তারপরেও অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর কর্মসূচি সফল হয়েছে বলে দাবি করেছেন মৎস্য কর্মকর্তা।

গত ১৪ অক্টোবর ৪ নভেম্বর পর্যন্ত সারা দেশের নদীগুলোতে চলে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম। এর আওয়াতায় ছিলো চাঁদপুরের প্রায় ৬০ কিলোমিটার নদী এলাকা। এ নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন, মৎস্য বিভাগ, কোস্টগার্ড নৌ পুলিশের তৎপরতা ছিলো উল্লেখ করার মতো। গত ২২ দিনে চাঁদপুরের সীমানায় মাছ শিকারের অপরাধে আড়াই শতাধিক জেলেকে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জেলেরা বলছে এ কর্মসূচি মেনে নদীতে মাছ ধরতে যাননি। তাই তারা এখন মাছ ধরতে যাবে বলে অনেক খুশি।

চাঁদপুরের চন্দ্রা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু বলেন, নির্ধারিত সময়ে সরকারের বরাদ্দকতৃ জাল জেলেদের হাতে ভিজিএফ এর চাল পৌঁছানো হয়েছে। কর্মসূচি সফল করতে ইউপি সদস্যসহ গ্রাম পুলিশও তৎপর ছিলো। তাই বলা চলে এবছর অভিযান সফল হয়েছে।

চাঁদপুরের মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসদুল বাকী বলেন, এ বছর কর্মসূচি প্রায় শতভাগ সফল হয়েছে। কর্মসূচি সফল হওয়ায় আগামী বছর ইলিশের উৎপাদন অব্যাহত ভাবে বৃদ্ধি পাবে।

চাঁদপুর মৎস্য বিভাগের তথ্য মতে, এ সর্মসূচি চলাকালে চাঁদপুরে মোট প্রায় সাড়ে তিনশ মোবাইকোর্ট ও অভিযান পরিচলানা করা হয়। চাঁদপুরে ৫১হাজার ১শ ৯০জন জেলে রয়েছে।