চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দুর্নীতির দায়ে হোসনি মুবারকের ৩ বছরের কারাদণ্ড

মিশরের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারককে দুর্নীতির দায়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে কায়রোর একটি আদালত। অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ পুনর্বিচারের পর এই রায় দেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

একই অভিযোগে মুবারকের দুই ছেলে আলা ও গামালকে ৪ বছর করে কারাদণ্ড ও অর্থ জরিমানা করে আদালত।

অভিযোগে বলা হয়েছিল, প্রেসিডেন্টের বাসভবন সংস্কারের নামে মুবারক ও তার দুই ছেলে সরকারের ১ কোটি ৪০ লাখ ডলার আত্মসাৎ করেছিলেন। আত্মসাৎ করা ওই অর্থ দিয়ে তারা নিজেদের কায়রোর বাসভবন এবং লোহিত সাগর তীরের ফার্ম হাউজের সংস্কার করেছিলেন।

এই অভিযোগে মুবারক ও দুই ছেলের বিচার শুরুর পর গত জানুয়ারিতে কিছু আইনি কারণে আগের বিচারটি রদ হয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

শনিবার ওই অভিযোগের পুনর্বিচারের রায় ঘোষণার সময় আদালতে ৮৭ বছরের মুবারক ও তার দুই ছেলে উপস্থিত ছিলেন। রায়ের আগে বেশ কয়েকজন মুবারক সমর্থক তার ছবি সম্বলিত টি-শার্ট পড়ে আদালতের সামনে হাজির হয়ে রায়ের প্রতিবাদ জানান।

২০১১ সালের গণঅভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হন সেনা শাসক হোসনি মুবারক। দুর্নীতি, হত্যাসহ নানা অভিযোগে বন্দি মুবারককে অসুস্থতার জন্য কায়রোর সামরিক হাসপাতালে রাখা হয়েছে।

অর্থ আত্মসাতের মামলাটি ছিল তার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া সর্বশেষ মামলা। তবে এই রায়ের পর ইতোমধ্যে কারাবন্দি মুবারকের সাজা নতুন করে ধরা হবে কি না সে বিষয়টি স্পষ্ট নয়। তবে এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করারও সুযোগ পাবেন মুবারক।

Bellow Post-Green View