চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তৃতীয়বারের মতো মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন মমতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে টানা তৃতীয়বারের মতো শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার স্থানীয় সময় সকাল পৌনে ১১টার দিকে কলকাতার রাজভবনে শপথ নেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানায়, বুধবার স্থানীয় সময় সকাল সোয়া দশটার দিকে তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিতে কালীঘাটের বাড়ি থেকে বের হন মমতা। এসময় তিনি বরাবরের মতো সাদা শাড়ি এবং হাওয়াই চপল পরে ছিলেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি রাজভবনে পৌঁছান। এরপর রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতাকে শপথবাক্য পাঠ করান।

সীমিত পরিসরে এই অনুষ্ঠানে মাত্র ২৫ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। অপরদিকে আগামী ৬ ও ৭ মে শপথ নেবেন নবনির্বাচিত বিধায়করা। তাদেরও রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় শপথ বাক্য পাঠ করাবেন।

বিজ্ঞাপন

গত ২৭ মার্চ থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত মোট আট দফায় হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার ভোটগ্রহণ। বিজেপি যদিও বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনে চেষ্টা করেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জয়ী হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। এবার নির্বাচনে বিধানসভার ২৯৪টি আসনের মধ্যে তৃণমূল জয়ী হয়েছে ২১৩টি আসনে। বিজেপি জয় পেয়েছে ৭৭টিতে। দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকা বাম-কংগ্রেস জোট একেবারেই অস্তিত্বহীন হয়ে পড়েছে।

শপথের পর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয়বারের মতো তার নিজের দপ্তর নবান্নের ১৪তলায় নিজের কক্ষে প্রবেশ করেন। এর আগে নবান্নে কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে দেয়া হয় গার্ড অব অর্নার।

তবে তৃণমূলের বেশিরভাগ প্রার্থী নির্বাচনে জয়ী হলেও জয় পাননি দলের সভানেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। নন্দীগ্রাম আসনে বর্তমান বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর কাছে ১ হাজার ৬২২ ভোটের ব্যবধানে হেরেছেন তিনি। তাই আগামী ৬ মাসের মধ্যে তাকে কোন একটি বিধানসভা থেকে জিতে আসতে হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ১৯ মে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে প্রথমবারের মতো শপথ পাঠ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর ২০১৬ সালে দ্বিতীয়বারের মতো মুখ্যমন্ত্রীর শপথ নেন মমতা।

বিজ্ঞাপন