চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তিন শতাধিক নাটকের পর কেন্দ্রীয় চরিত্রে শহিদুল্লাহ সবুজ

প্রায় ১২ বছর ধরে থিয়েটার এবং ছোটপর্দায় কাজ করছেন শহিদুল্লাহ সবুজ। নাটকের নিয়মিত দর্শকদের কাছে তিনি পরিচিতি মুখ। এ অভিনেতা তার ক্যারিয়ারে প্রায় তিন শতাধিক নাটকে অভিনয়ের পর এবারই প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করলেন।

নির্মাতা আবু হায়াত মাহমুদের পরিচালনায় ‘কোটিপতি’ নাটকের মাধ্যমে শহিদুল্লাহ সবুজ এ সুযোগ পেয়েছেন জানিয়ে চ্যানেল আই অনলাইনকে বললেন, এর আগে সমান্তরাল গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে কাজ করেছি। তবে তিন শতাধিক নাটকে অভিনয়ের পর এটাই আমার প্রথম সলো কাজ। মানে কেন্দ্রীয় চরিত্র।

বিজ্ঞাপন

২০০৭-১০ সাল থেকে ‘বঙ্গরঙ্গ’ থিয়েটারে কাজ করেছেন শহিদুল্লাহ সবুজ। ২০১১ সাল থেকে যুক্ত আছেন ‘নাট্যকেন্দ্র’ থিয়েটারে।

শহিদুল্লাহ সবুজ বলেন, গত দুই বছর ধরে কেন্দ্রীয় চরিত্রে কাজের জন্য অনেকেই বলেছিলেন। ভালো গল্প বা সামগ্রিক পরিস্থিতিতে ব্যাটে বলে টাইমিং হয় নাই বলে আর করা হয়নি। আমি যেহেতু থিয়েটার করি। তাই নিজেকে নানামাত্রিক চরিত্রে মেলে ধরতে ক্যারেক্টার আর্টিস্ট হিসেবে কাজ করেছি। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, নিজেদের পরিপক্কতার জন্য সময় নিয়েছি।

‘কোটিপতি’ নাটক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একজন মানুষ প্রচুর টাকা উপার্জন করে কোটিপতি হয়ে যায়। যেকোনো কারণে সে আবার নিঃস্ব হয়ে যায়। গল্পের শুরু এখান থেকেই। এর বাইরেও এখানে স্বামী-স্ত্রীর গল্প রয়েছে। আশরাফুল চঞ্চলের রচনায় তার অভিনীত ‘কোটিপতি’ নাটকের শুটিং শেষ। শিগগির অন এয়ারে আসতে পারে।

নির্মাতা আবু হায়াত মাহমুদ বলেন, এবারই প্রথম শহিদুল্লাহ সবুজ কেন্দ্রীয় চরিত্রে কাজ করলেন। তার বিপরীতে নিশাত প্রিয়ম। এ ধরণের গল্প এবং কাজ দিয়েই সবচেয়ে বেশি দর্শকের কাছে পৌঁছানো যায়। বিনোদনের সঙ্গে শিক্ষণীয় একটি বার্তা রয়েছে নাটকটিতে। বর্তমানে সম্পাদনার কাজ চলছে। শিগগির প্রচারে আসবে ‘কোটিপতি’।

নাটকে আরও অভিনয় করেছেন নিশাত প্রিয়ম, মুকিত জাকারিয়া, নরেশ ভূঁইয়া, শেখ মাহবুবুর রহমান, জুলফিকার চঞ্চল, রিগ্যান রত্ন সোহাগ, পারভেজ সুমন, আলমগীর হোসেন, পিন্টু প্রমুখ।