চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ডাকসু নির্বাচন বর্জন করলো ছাত্রদলসহ ৫ প্যানেল

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল, প্রগতিশীল ছাত্রঐক্য, কোটা সংস্কার আন্দোলনের ব্যানারে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, স্বাধিকার এবং স্বতন্ত্র জোটের অরণি-শাফী প্যানেল ডাকসু নির্বাচন বর্জন করেছে। একই সাথে নির্বাচন আবারও অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়েছে তারা।

সোমবার দুপুর ১টায় মধুর ক্যান্টিনে প্রথমে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান প্রগতিশীল ছাত্রঐক্যের লিটন নন্দী। একই সাথে উপাচার্যের কার্যালয় সামনে আজ অবস্থান কর্মসূচি ও আগামীকাল ক্লাস বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

বিজ্ঞাপন

এরপর ছাত্রদলের পক্ষ থেকেও নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

এর আগে তিনটি ব্যালট বাক্স সরিয়ে রাখার অভিযোগ নিয়ে সৃষ্ট বিশৃঙ্খলাকে কেন্দ্র করে বেলা ১২টার দিকে বেগম রোকেয়া হলে ভোটগ্রহণ বন্ধ করে দেয়া হয়

এই বিশৃঙ্খলার মাঝে কোটা আন্দোলনকারী প্যানেলের সহ-সভাপতি (ভিপি) প্রার্থী নুরুল হক নূর মারধরের শিকার হন। তার অভিযোগ, ছাত্রলীগ প্যানেলের লোকজন তাকে আঘাত করেছে।

সোমবার সকাল ৮টায় প্রায় সব হলে ডাকসু নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হলেও রোকেয়া হলে প্রায় এক ঘণ্টা দেরিতে শুরু হয়েছিল ভোট। এর কিছুক্ষণ পরই একাধিক প্রার্থী অভিযোগ করতে থাকেন যে, তিনটি ব্যালট বাক্স সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয় বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলেও। এসবের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন বর্জন করে স্বতন্ত্র জোট অরণি-শাফী প্যানেল।