চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মার্কিন কংগ্রেসে জো বাইডেনকে চূড়ান্তভাবে জয়ী ঘোষণা

অনেক ঘটনার পরে অবশেষে চূড়ান্তভাবে মার্কিন কংগ্রেসের যৌথ সভায় জো বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট পদে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে। ২০ জানুয়ারি শপথ নিতে আর কোনো বাধা নেই নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস হ্যারিসের।

এনডিটিভির সংবাদের তথ্যমতে, বাইডেন শপথ নেওয়ার আগেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ক্ষমতাচ্যুত করার দাবি উঠেছে। পার্লামেন্ট ভবনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকদের বিক্ষোভ, ভাংচুর ও সন্ত্রাসী সহিংসতায় এ পর্যন্ত ৪ জনের মৃত্যু এবং ১৪ জন পুলিশ আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সংঘাত এড়াতে জারি করা কারফিউ চলবে আগামী ১৫ দিন। এসময় স্থানীয় সময় বুধবার রাতভর ইলেকট্রোরাল কলেজ ভোট গণনা শেষে জো বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট ও কমলা হ্যারিসকে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে জয়ী ঘোষণা করা হয়। গণতন্ত্র ও সংবিধান রক্ষায় মার্কিন নেতাদের এ অভূতপূর্ব রায়ে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে চূড়ান্ত অনুমোদন পেলেন জো বাইডেন।

এর আগে রিপাবলিকান সদস্যদের দাখিল করা এরিজোনা ও পেনসিলভেনিয়ার ফলাফল বাতিলের আবেদন নিয়ে দীর্ঘ বিতর্ক ও ভোটাভুটি শেষে তা খারিজ হয়ে যায়। পরে এক এক করে ৫০টি অঙ্গরাজ্যের ইলেকট্রোরাল ভোট সার্টিফাইট বা সত্যায়ন করে চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করেন অধিবেশনের সভাপতি ভাইস প্রেসিডন্ট মাইক পেন্স। এতে বাইডেনে-হ্যারিসের প্রাপ্ত ৩০৬ ইলেকট্রোরাল ভোট এবং ট্রাম্প-পেন্সের ২৩২ অক্ষুণ্ন থাকে।

নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ পরিচালনা করেন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। হাউস ও সিনেট যৌথ অধিবেশন শুরু হয় স্থানীয় বুধবার রাত ৮ টায় এবং তা শেষ হয় পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল ৩টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত। যদিও রিপাবলিকান সিনেটরদের জর্জিয়া এবং উইসকনসিনের ভোট বাতিলের দাবি কোন প্রকার ভোটাভুটি ছাড়াই খারিজ হয়ে যায়। আবার অনেক রিপাবলিকান সদস্যরা তাদের অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেন।