চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চিরনিদ্রায় শায়িত নায়ক শাহীন আলম

বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন চিত্রনায়ক শাহীন আলম। মঙ্গলবার সকাল দশটার দিকে তাকে সমাহিত করা হয় বলে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

এরআগে ফজর নামাজের পর নিকেতন এর মসজিদে তার জানাজা সম্পন্ন হয় বলে জানান শাহীন আলমের একমাত্র ছেলে ফাহিম আলম। জানাজা ও দাফনের সময় উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক ওমর সানী।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

দাফন সম্পন্ন করে এসে সামাজিক মাধ্যমে ওমর সানী লেখেন, “শেষ বিদায় দিয়ে আসলাম ভোরবেলায় বনানী কবরস্থানে, বন্ধু শাহীন আলম কে। বন্ধু অমিত হাসান মিশা সওদাগর, শাহীন আলম আর আমি এক সময় পথ চলা, তুই ফাঁকি দিয়ে চলে গেলি, অনেক কিছু লিখতে চাইলাম। কোথায় যেন আটকে যাচ্ছি, থাক বন্ধু । আল্লাহ তোকে জান্নাত নসিব করুন আমিন।”

সোমবার রাত ১০টা ৫ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজগর আলী হাসপাতালে মারা যান শাহীন আলম। দীর্ঘদিন ধরে কিডনি ও ডায়াবেটিস রোগে ভুগছিলেন তিনি। অবস্থার অবনতি হলে গত শনিবার রাতে তাকে আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার দুটি কিডনিই বিকল হয়ে গিয়েছিলো। সর্বশেষ তাকে লাইফ সাপোর্টে রেখে ডায়ালাইসিস দেয়া হচ্ছিলো।

১৯৮৬ সালে নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান শাহীন আলম। তার অভিনীত প্রথম সিনেমা ‘মায়ের কান্না’। এটি ১৯৯১ সালে মুক্তি পায়। এর পরে আরো অনেক ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। বিতর্কিত চলচ্চিত্রেও দেখা গেছে তাকে। শেষ দিকে চলচ্চিত্র থেকে দূরে ছিলেন শাহীন আলম। নিজের ব্যবসা নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন