চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘ঘটনা সত্য’ টেলিফিল্মের আপত্তিকর অংশটি চ্যানেল আই প্রচার করেনি

চ্যানেল আই কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সিএমভি’র ইউটিউবে প্রচারিত ‘ঘটনা সত্য’ টেলিফিল্মের আপত্তিকর অংশটি চ্যানেল আই প্রচার করেনি। যে ইউটিউব চ্যানেলে ওই আপত্তিকর অংশটি ছিল সেই ইউটিউব চ্যানেলটিও চ্যানেল আইয়ের নয়।

চ্যানেল আই’র অনুষ্ঠান প্রধান আমীরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, চ্যানেল আই কর্তৃপক্ষ গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছে যে, ‘ঘটনা সত্য’ টেলিফিল্ম নিয়ে বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিছু ভুল তথ্য প্রচার হওয়ার কারণে জনমনে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে বলা হয়:
 সিএমভি নামক একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নির্মিত টেলিফিল্মটির শুধুমাত্র টেলিভিশন প্রচারস্বত্ব কিনেছিল চ্যানেল আই এবং সে অনুযায়ী তা ২৩ জুলাই, ২০২১ দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে প্রচার হয়।

 সিএমভি’র ইউটিউবে প্রচারিত টেলিফিল্মটির শেষদিকে ধারাভাষ্যে যে আপত্তিকর অংশ আছে সেই আপত্তিকর অংশ চ্যানেল আই প্রচার করেনি। যেসব প্রতিষ্ঠান সার্বক্ষণিক বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠান ও সংবাদ রেকর্ড করে তাদের যে কারো কাছ থেকে ওইদিন প্রচারিত টেলিফিল্মটির রেকর্ড সংগ্রহ করলে এর প্রমাণ পাওয়া যাবে।

 চ্যানেল আই যেহেতু শুধুমাত্র টেলিফিল্মটির টেলিভিশন প্রচারসত্ব কিনেছিল তাই চ্যানেল আই’র কোন ইউটিউব চ্যানেলেও টেলিফিল্মটি প্রচার হয়নি।

বিজ্ঞাপন

 প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সিএমভি তাদের ইউটিউব চ্যানেলে টেলিফিল্মটি প্রচার করেছিল। সেখানে থাকা আপত্তিকর কোন বক্তব্যের দায় কোনভাবেই চ্যানেল আইয়ের নয়।

 চ্যানেল আই সবসময়ই বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশু ও প্রতিবন্ধী এবং তাদের মা-বাবা ও স্বজনদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। বিশেষ দিবস ছাড়াও চ্যানেল আই সবসময়ই তাদের প্রতি যত্নশীল থেকে অনুষ্ঠান নির্মাণ ও সংবাদ প্রচার করে থাকে।

বিবৃতিতে আমীরুল ইসলাম বলেন: আমরা আশা করি, আমাদের এ বক্তব্যের পর ‘ঘটনা সত্য’ টেলিফিল্মটিকে কেন্দ্র করে চ্যানেল আইকে জড়িয়ে কারো কোন ভুল বোঝাবুঝি থাকলে তার অবসান হবে।

‘টু দ্য পয়েন্ট’ অনুষ্ঠানে প্রচারিত একটি বক্তব্য প্রসঙ্গে
গত ১১ জুলাই সরাসরি সম্প্রচারিত ‘টু দ্য পয়েন্ট’ অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে অংশ নিয়ে ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন বলেছিলেন: ‘আমার নিজের ছেলেটারে প্রতিবন্ধী বানাইয়া রাইখা আমি এখন আর্জেন্টিনা ছেলে এবং ব্রাজিলের ছেলে নিয়া লাফাচ্ছি।… লাফানো ঠিক আছে। আমরা অনেক ছোটবেলা থেকে ম্যারাডোনার ভক্ত, কিন্তু নিজের ছেলেটারে এভাবে প্রতিবন্ধী বানাব?’

চ্যানেল আই’র বিবৃতিতে বলা হয়, লাইভ অনুষ্ঠানে সম্প্রচারিত কোন অতিথির বক্তব্য তার নিজস্ব, কোনভাবেই চ্যানেল আইয়ের নয়। তারপরও ব্যারিস্টার সুমনের ওই বক্তব্যে কেউ আঘাত পেয়ে থাকলে চ্যানেল আই দুঃখিত এবং গভীরভাবে সমব্যথী।

বিজ্ঞাপন