চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যার পর বাড়িতে লুট

গাজীপুরের কালীগঞ্জের পশ্চিম চৈতরপাড়া এলাকায় প্রবাসীর স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যার পর বাড়িতে লুটের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার রাতে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফারজানা ইয়াছমিন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

নিহত নাজমা বেগম (৫০) উপজেলার পশ্চিম চৈতরপাড়া এলাকার সৌদি প্রবাসী মোমেন মির্জার স্ত্রী।

কালীগঞ্জ পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আহামুদুল কবির ও নিহতের স্বজনরা জানান, শুক্রবার রাত পৌণে নয়টার দিকে পশ্চিম চৈতরপাড়া এলাকায় প্রবাসী মোমেন মির্জার বাড়িতে থাকা তার স্ত্রীকে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তার ছেলেসহ স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাত পৌণে ১০ টার দিকে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। ঢাকা নেওয়ার পথে রাত সাড়ে দশটার দিকে নাজমা বেগমের মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন

নিহতের স্বজনরা জানান, নাজমা বেগমকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে অচেতন করে স্বর্ণালঙ্কারসহ বাড়িতে থাকা নগদ টাকা লুট করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

কালীগঞ্জ পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আহামুদুল কবির বলেন, নিহত নাজমা বেগমের স্বামী মোমেন মির্জা সৌদি প্রবাসী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা সূত্রে জানা যায়, ‘নিহত নাজমা বেগমের ছোট ছেলে স্বপন (২০) তার কয়েকজন বন্ধুকে নিয়ে বিকেলে তাদের বাড়ির ছাদে মাদকের পার্টি করেছিলো বলে আলামত পাওয়া গেছে। এছাড়াও বাড়িতে থাকা নগদ প্রায় ৯০ হাজার টাকা ও কিছু স্বর্ণালঙ্কার লুট হয়েছে এবং স্বপনের সঙ্গে পার্টিতে অংশ নেওয়া তার বন্ধুরা নরসিংদী জেলার বলে জানা গেছে। ‘

কালীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফারজানা ইয়াছমিন বলেন, ‘নাজমা বেগমের বাড়ির ছাদে মাদকের আলামত পাওয়া গেছে। টাকা লুটের ঘটনা ঘটছে বলে নিহতের স্বজনরা জানিয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নাজমা বেগমকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।’