চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খুঁজে পাওয়া গেলো পর্দার এলভিস প্রিসলিকে

অস্ট্রেলিয়ান নির্মাতা বাজ লুরম্যান নির্মাণ করছেন মার্কিন রক সংগীতশিল্পী ও অভিনেতা এলভিস প্রিসলির বায়োপিক। তবে এলভিস প্রিসলির চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অভিনেতা খোঁজা হচ্ছিল এতদিন। অবশেষে অস্টিন বাটলারের মাঝেই এলভিস প্রিসলিকে খুঁজে পেলেন নির্মাতা।

এলভিস প্রিসলির চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অডিশন দিয়েছেন একাধিক অভিনেতা। তবে শেষ পর্যন্ত এই চরিত্রে নির্বাচন করা হয়েছে আমেরিকান অভিনেতা এবং গায়ক অস্টিন বাটলারকে। তিনি ‘দ্য ক্যারি ডাইরিজ’ এবং ‘অ্যারো’ এর মতো জনপ্রিয় টিভি শোতে অভিনয় করে পরিচিত পেয়েছেন। এছাড়াও কোয়েন্টিন টারেন্টিনোর ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’ ছবিতেও একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

বায়োপিকে সাধারণ একজন মানুষ থেকে এলভিস প্রিসলির তারকা বনে যাওয়ার কাহিনী দেখানো হবে। এছাড়াও ম্যানেজার কলোনেল টম পার্কারের সঙ্গে প্রিসলির সম্পর্কটাও এই ছবির গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে থাকবে। কারণ সত্তরের দশকের শুরুর দিক পর্যন্ত ম্যানেজার তার প্রতিটি কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। এলভিস প্রিসলিকে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে প্রতিষ্ঠিত করে তোলায় তার বড় ভূমিকা ছিল।

ছবির শুটিং হবে অস্ট্রেলিয়ায়। শোনা যাচ্ছে এলভিস প্রিসলির জীবনের কাহিনীকে দুইভাগে ভাগ করে দুটি সিনেমা নির্মাণের পরিকল্পনা করছেন নির্মাতা। একটিতে ২০ থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত সাফল্যের গল্প দেখানো হবে। আরেকটিতে ৩৫ বছরের পরের ঘটনাগুলো দেখানো হবে।

এলভিস প্রিসলির বায়োপিকে ম্যানেজার টম পার্কারের চরিত্রে দেখা যাবে টম হ্যাঙ্কসকে। চিত্রনাট্য লিখছেন ক্রেগ পার্সি। প্রযোজনা করবে ওয়ার্নার ব্রস। এবছরেই শুটিং শুরু হবে। ছবিটি ২০২০ সালে মুক্তি পাবে।

Bellow Post-Green View