চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কোহলির ভারতকে থামাতে পারছে না প্রোটিয়ারা

১১২, ৪৬*, ১৬০*, ৭৫, ৩৬, ১২৯*; সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে ছয় ওয়ানডের সিরিজে বিরাট কোহলির সংগ্রহ। অধিনায়ককে যেমন থামাতে পারেনি প্রোটিয়ারা, তেমনি পারেনি ভারতকেও। শেষ ওয়ানডেতে ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে জিতে ৫-১এ সিরিজের ইতি টানল সফরকারী ভারত।

সেঞ্চুরিয়নে ভারতের জয়ের ভিত্তি গড়ে দেন বোলাররাই। শুরুতে ব্যাট করে ৫০ ওভারও ব্যাট করতে পারেনি স্বাগতিকরা। নির্ধারিত ওভারের ১৯ বল আগেই গুটিয়ে যায় ২০৪ রানে। জবাবে ১০৭ বল আর ৮ উইকেট হাতে রেখে জয়ে নোঙর ফেলে ভারত।

টেস্ট সিরিজে ২-১এ ব্যর্থতার পর ওয়ানডেতে এমনভাবে ঘুরে দাঁড়াল ভারত, যাতে কেবল সান্ত্বনার জয় হোক আর হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ানোই হোক, এক ম্যাচ জিতেই সেটা সারতে হল আফ্রিকানদের। বৃষ্টিবিঘ্নিত চতুর্থ ওয়ানডেটি জেতে প্রোটিয়ারা।

সিরিজের বাকি অংশে কোহলির ব্যাটের মতই ধারে-ভারে কেটেছে ভারত। শেষ ম্যাচেও কোহলিই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন আরেকবার। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩৫তম সেঞ্চুরি তুলে। ১২৯ রানে অপরাজিত থেকে ম্যাচ শেষ করেছেন। ১৯ চার আর ২ ছক্কায় ৯৬ বলের ইনিংস তার।

দুইশ পেরোনো লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ধাওয়ান (১৮) ও রোহিতকে (১৫) হারায় ভারত। রাহানেকে নিয়ে বাকি কাজটা সারেন কোহলি। অবিচ্ছিন্ন ১২৬ রানের জুটি দুজনের। রাহানে অপরাজিত থাকেন ৩৪ রানে।

বিজ্ঞাপন

প্রোটিয়াদের হয়ে দুটি উইকেটই নিয়েছেন লুনঙ্গি এনগিডি।

মূর্তিকারিগর

আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে এসে স্বাগতিকদের প্রায় সব ব্যাটসম্যানই রানের দেখা পেয়েছেন। তবে জোন্ডো (৫৪) ছাড়া ইনিংস বড় করতে পারেননি কেউই।

অধিনায়ক মার্করাম ২৪, আমলা ১০, ডি ভিলিয়ার্স ৩০, ক্লাসেন ২২, ফেলুকোয়ও ৩৪ ও মরকেল ২০ রান করে কেবল সংগ্রহটা দুইশ ছোঁয়াতে পেরেছেন। উড়তে থাকা ভারতের জন্য যা যথেষ্ট ছিল না।

ভারতের হয়ে পেসার শার্দূল ঠাকুর ৫২ রানে ৪ উইকেট নিয়ে সেরা। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন বুমরাহ ও চাহাল। একটি করে গেছে পান্ডিয়া ও কুলদীপের ঝুলিতে।

এবার তিন টি-টুয়েন্টির সিরিজে লড়বে ভারত-সাউথ আফ্রিকা। ১৮ ফেব্রুয়ারি হবে প্রথম ম্যাচ।

বিজ্ঞাপন