চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কৃষকের থেকে সরাসরি ধান-চাল কেনা নিয়ে হাইকোর্টের রুল

অভ্যন্তরীণ খাদ্যশস্য ক্রয় নীতিমালা-২০১৭ অনুসারে কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান ও চাল কেনার কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

খাদ্য ও কৃষি সচিব এবং খাদ্য অধিদপ্তরের মাহপরিচালককে আগামি চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় কৃষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম গোলাপের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রুল জারি করেন।

বিজ্ঞাপন

রিট আবেদনে বলা হয়, নীতিমালা অনুযায়ী সরকারের পক্ষ থেকে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান ও চাল সংগ্রহ করার কথা। কিন্তু কিছু গুদাম মালিক ও মধ্যস্বত্বভোগীর কারণে এই নীতিমালা লংঘিত হচ্ছে। কৃষক তার পণ্যের নায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সরকার ঘোষিত মূল্যে কৃষক ধান বা চাল বিক্রির সুযোগ পাচ্ছে না।

‘সরকারের সংশ্লিষ্টরা সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান বা চাল কিনছে না। ফলে এক শ্রেণির লোককে বেআইনী সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। তারাই কৃষকের কাছ থেকে কম মূল্যে ধান বা চাল সংগ্রহ করছে। ফলে কৃষক অপূরণীয় ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। তারা উৎপাদন খরচও পাচ্ছে না।’

রিট আবেদনে আরো বলা হয়, দেশের একটা বড় অংশের কৃষকের প্রধান পেশা ধান উৎপাদন করা। শুধুমাত্র ধান বিক্রি করেই তাদের জীবন-জীবিকা চলে। কিন্তু দিন দিন ধান উৎপাদনের খরচ বাড়ছে। কিন্তু তাদের উৎপদান খরচের চেয়ে কম দামে ধান বিক্রি করতে হচ্ছে। ফলে কৃষকরা ধান চাষে নিরুৎসাহিত হচ্ছে। এটা দেশের সামগ্রীক অর্থনীতির ওপর প্রভাব ফেলছে।

আজ আদালতে রিট আবেদনকারী পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ফিরোজ আলম।

Bellow Post-Green View