চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাজী হায়াতের ‘বীর’ দিয়ে শুটিংয়ে ফিরলেন শাকিব খান

কাজী হায়াতের পরিচালনায় প্রথমবার ক্যামেরার সামনে শাকিব খান…

অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে এসকে ফিল্মস প্রযোজিত তৃতীয় সিনেমা ‘বীর’-এর শুটিং শুরু হলো। আর এ সিনেমার মধ্য দিয়ে নতুন করে নিজেকে প্রস্তুত করে শুটিংয়ে ফিরলেন ঢাকাই ছবির শীর্ষ অভিনেতা শাকিব খান।

২০১৪ সালে ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’ এবং গেল রোজার ঈদে ‘পাসওয়ার্ড’-এ দুটি সিনেমা প্রযোজনা করে ব্যাপক সাফল্য পায় শাকিব খান ফিল্মস (এসকে ফিল্মস)। এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের তৃতীয় সিনেমা ‘বীর’-এর শুটিং শুরু হয়েছিল জুলাইতে।

বিজ্ঞাপন

প্রথমধাপে শাকিব খান শুটিংয়ে অংশ না নিলেও তার ছোটবেলার কিছু অংশের তিনদিনের শুটিং হয়। তারপর থেমে ছিল ‘বীর’-এর শুটিং। একাধিকবার শুটিং শুরুর কথা শোনা গেলেও তা হয়নি। এরমধ্যে শাকিব খান ছিলেন আড়ালে। রহস্য রেখেই তিনি শুটিং থেকে দূরে ছিলেন প্রায় দেড়মাস।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) সকাল থেকে ‘বীর’-এর শুটিং-এ অংশ নিয়েছেন শাকিব খান, এমনটাই চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন দেশিয় চলচ্চিত্রের প্রভাবশালী এই চিত্রতারকা। শাকিব খান বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পূবাইলে ‘বীর’-এর শুটিং করছি। সপ্তাহ দুয়েক টানা কাজ চলবে। পুরো সময়টায় মনোযোগ শুধু ‘বীর’-এ থাকবে।

তিনি বলেন, কিছুদিন শুটিং থেকে দূরে ছিলাম শুধুমাত্র ‘বীর’-এর জন্য। এ সিনেমায় চরিত্রের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে কিছুটা সময় লেগেছে। ‘বীর’-এর গল্পটাই এমন যে আমাকে প্রস্তুত হতে বাধ্য করেছে। বাকিটা স্ক্রিনে দেখলে দর্শক বুঝতে পারবেন।

‘বীর’ পরিচালনা করছেন কিংবদন্তি চিত্রপরিচালক কাজী হায়াৎ। এ সিনেমার মাধ্যমে প্রথমবার শাকিব খানকে নিয়ে কাজ করছেন। গত বছরের শেষের দিকে শুটিং শুরুর কথা ছিল সিনেমাটির। কিন্তু তখন হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েন কাজী হায়াৎ। চিকিৎসা নিতে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছিলেন তিনি।

‘বীর’ প্রসঙ্গে কাজী হায়াৎ বলেন, এটি আমার ৫০ তম সিনেমা, স্বপ্নের প্রজেক্ট। দীর্ঘদিন সময় নিয়েই ছবিটির গল্প বুনেছি, সংলাপ লিখেছি। গবেষণা করে কাজটি শুরু করেছি। আমার কাছে যেমন বিশেষ, তেমনি ঢাকার দর্শকের কাছেও ছবিটি বিশেষ হয়ে থাকবে, সেভাবেই কাজটি করছি। আমার দীর্ঘ সিনেমা জীবনের অভিজ্ঞতার আলোকে বলছি, ‘বীর’ একাধিক জাতীয় স্বীকৃতি আনবে। বৃহস্পতিবার থেকে শাকিব এবং অন্যরা শুটিং করছে। ‘বীর’-এর নায়িকা বুবলী ৩ ডিসেম্বর থেকে শুটিংয়ে অংশ নেবেন।

কাজী হায়াৎ বলেন, শাকিব খান অভিনীত ছবি ছাড়া এখন সিনেমায় বিনিয়োগ ফিরছে না। অনেক বড় বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেছে। যেগুলো আছে, তা-ও বন্ধের পথে। এই দুঃসময়ে শাকিব খানের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে ফিল্মস কাজ শুরু করেছে। আমার এই স্বপ্নের সিনেমাটি প্রযোজনা করতে শাকিব খান এগিয়ে এসেছেন। এ জন্য বিশেষ ধন্যবাদ তাকে।