চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে কার্যকর ফাইজারের ভ্যাকসিন

করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে কার্যকর ভূমিকা রাখতে সম্ভব ফাইজারের ভ্যাকসিন। এমন ঘোষণার মধ্যে, ফাইজার থেকে চলতি বছর ৫ কোটি ডোজ করোনা ভ্যাকসিন পাচ্ছে ভারত।

এই টিকা ১২ বছরের উর্ধ্বের যে কারও শরীরে প্রয়োগ করা যাবে বলে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ভ্যাকসিন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। এমনকি ভ্যাকসিনটি ২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেট তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা যাবে বলেও জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে ফাইজারের ভ্যাকসিন ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সী শিশুদের শরীরে ব্যবহারের ছাড়পত্র দিয়েছে বিশ্বের একাধিক দেশ। কানাডার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সীদের ফাইজারের ভ্যাকসিন দেয়া শুরু করবে তারা।

প্রাথমিকভাবে ফাইজারের ভ্যাকসিন মাইনাস ৭০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করার কথা বলা হয়েছিলো। যা বিশ্বের অধিকাংশ দেশে কার্যত অসম্ভব। ফাইজার এখন জানাচ্ছে, ভ্যাকসিন মাইনাস ২৫ ডিগ্রি থেকে ২-৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় এক মাস পর্যন্ত রাখা যাবে।