চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস: কনট্যাক্ট ট্রেসিং কী এবং কেন জরুরি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এমন করো সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের সতর্ক করা এবং তারা যেন ভাইরাসটি আর না ছড়ান সেটা নিশ্চিত করাই কনট্যাক্ট ট্রেসিংয়ের মূল উদ্দেশ্য। গবেষকরা বলছেন, সেই সাথে ভাইরাসটির বিস্তার সীমাবদ্ধ করার এবং কিছু এলাকা নিরাপদে খুলে দেয়ার জন্যই এটি জরুরি।

কিন্তু সেই প্রক্রিয়াটা মোটেও সহজ নয়। যখন কারও শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়, তখন সে আর কোথায় কোথায় গেছে এবং কার কার সংস্পর্শে এসেছে তা জানা যাবে কনট্যাক্ট ট্রেসারের সাহায্যে।

খুব কাছে থাকা কেউ, ৬ ফুট দূরত্বে থাকা অন্তত ১০ মিনিট পাশে থাকা কাউকে চিহ্নিত করাই এর মূল লক্ষ্য। তাদের তখন সেলফ আইসোলেশনে নেওয়া হবে, কোনো লক্ষণ আছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করা হবে এবং প্রয়োজন পড়লে পরীক্ষা করা হবে।

যাদের লক্ষণ দেখা দেবে তাদের সঙ্গে আবার ওই ট্রেসিং প্রক্রিয়া করা হবে।

বিশ্বে বিভিন্ন পদ্ধতিতে কনট্যাক্ট ট্রেসিং করা হচ্ছে। কিন্তু যেহেতু বন্ধু ও পরিবারের লোকসমাগম আবার চালু হয়েছে, বার রেস্টুরেন্ট ও অন্যান্য জায়গা খুলে দেওয়া হয়েছে তাই সংস্পর্শ নিশ্চিত করা কঠিন হয়ে পড়েছে।

বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য কর্মকর্তারাও তাই সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন। আবার এক্ষেত্রে স্বাস্থ্যকর্মীদের দ্রুত কাজ করার তাড়াও রয়েছে। তা না হলে একদিনেই আরো অনেকে আক্রান্তের সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত হয়ে পড়তে পারে।

শেয়ার করুন: