চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এবার করোনা আক্রান্ত রিয়ালের সাবেক সভাপতির পুত্র

তিন দিন আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বাবা। শোক সয়ে ওঠার আগেই একই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের সদ্যপ্রয়াত সাবেক সভাপতি লরেঞ্জো সাঞ্জর ছেলে পাকো সাঞ্জ। মাদ্রিদের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে।

গ্রেনাডা ভিত্তিক পত্রিকা এল আইডিয়াল ডি গ্রেনাডার ভাষ্যমতে, প্রচণ্ড জ্বর নিয়ে তিনবার পরীক্ষার পরও দেহে করোনার কোভিড-১৯ ভাইরাস পাওয়া যায়নি পাকোর। চতুর্থবার পরীক্ষার সময় তার দেহে ধরা পড়ে ভাইরাস। প্রথমে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হলেও এখন সাধারণ ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে ৪৭ বছর বয়সী সাবেক এ ফুটবলারকে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

রিয়াল মাদ্রিদের যুবদলের হয়ে ফুটবলের হাতেখড়ি পাকোর। যদিও কোনদিনই খেলা হয়নি মূলদলে। ১৯৯৫ সালে বাবা লরেঞ্জো সাঞ্জ যখন রিয়ালের সভাপতি নির্বাচিত হন, তখন খেলতে চলে যান রিয়াল ওভেইডোর হয়ে। ক্লাবটির হয়ে ৮ ম্যাচ খেলেছেন। পরে খেলেছেন রেসিং ও মায়োর্কার হয়ে। অবসরের পর হয়েছেন গ্রেনাডার সভাপতি।

বিজ্ঞাপন

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২১ মার্চ মারা যান পাকোর পিতা লরেঞ্জো সাঞ্জ। ১৯৯৫ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত রিয়ালের সভাপতি ছিলেন তিনি। তার আমলে ৩২ বছরের খরা কাটিয়ে দুবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতে লস ব্লাঙ্কোসরা। একটি করে লিগ ও কাপ শিরোপাও আছে তার নামের পাশে। পাকো সাঞ্জ লরেঞ্জো সাঞ্জর দ্বিতীয় পুত্র।