চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘এক ঢিলে দুই পাখি’ মারলেন ঋতুপর্ণা!

মাত্র দু’দিনের জন্য ঢাকায় এসেছিলেন দু’বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। প্রধান কারণ, রেইনবো ফিল্ম সোসাইটি আয়োজিত অষ্টাদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে তার অভিনীত ‘আহারে’ ছবির প্রদর্শনে অংশগ্রহণ!

সেটাতো করলেনই, সেই সঙ্গে সুযোগ বুঝে বাংলাদেশের ছবি ‘গাঙচিল’-এরও দু’দিন শুটিং সেরে নিলেন! পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল এটাকে বললেন ‘এক ঢিলে দুই পাখি’ মারা!    

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের লেখা উপন্যাস ‘গাঙচিল’-এর গল্প অবলম্বনে তৈরি হচ্ছে এ ছবি। উপন্যাসটি নিয়ে ওবায়দুল কাদের আগেই জানিয়েছেন, এটি কোন কাল্পনিক গল্প নয়। নোয়াখালীর একটি চর ‘গাঙচিল’ কে উপজীব্য করে পুরো উপন্যাসটি লেখা হয়েছে। ওখানকার মানুষের জীবনের নানা বিষয় ‘গাঙচিল’ উপন্যাসে উঠে এসেছে।

ওই এলাকার মানুষকে যেভাবে ঝড়, বন্যা আর জলোচ্ছ্বাসের সঙ্গে লড়াই করে বেঁচে থাকতে হয়, সেসব সংগ্রামই উপন্যাসের উঠে এসেছে। ২০১৫ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় সময় প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হয়েছিল ‘গাঙচিল’।

ছবির পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল। যিনি এর আগে ‘এক কাপ চা’ নির্মাণ করেছিলেন। এই চিত্রপরিচালক বলেন, ফেরদৌসের সঙ্গে ঋতুপর্ণাকে নিয়ে দু’দিনে একটি গানের শুটিং করেছি। ৩০০ ফিট এবং এর আশপাশের বিভিন্ন রাস্তায় শুটিং হয়েছে। সোমবার-মঙ্গলবার দুদিন শুটিং করেছি। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে ঋতুপর্ণা আবার কলকাতা ফিরে গেছেন।

ফেরদৌস-ঋতুপর্ণা ছাড়াও ‘গাঙচিল’ ছবিতে আরও অভিনয় করছেন পূর্ণিমা, তারিক আনাম খান, আনিসুর রহমান মিলন, আহসানুল হক মিনু প্রমুখ।

পরিচালক নেয়ামূল চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ২৩ জানুয়ারি থেকে শেষ লটের শুটিং করবো। চলবে ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তখন সবাই শুটিংয়ে অংশ নেবেন। টানা কাজের মাধ্যমে ক্যামেরা ক্লোজ করবো। ‘গাঙচিল’ ছবির মুক্তি দিতে চাই চলতি বছরের যে কোনো ঈদে। সেভাবেই পরিকল্পনা করে আগানো হচ্ছে।

শেয়ার করুন: