চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

উবার, ওলা’য় ধ্বংস ভারতের অর্থনীতি!

অভিযোগ কংগ্রেস নেতা অভিষেক মানু সিংভি’র

মোদি সরকার উবার এবং ওলার মতো রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলোকে সুযোগ করে দিয়ে ভারতের অর্থনীতির অগ্রগতি ধ্বংস করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দেশটির প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের অন্যতম নেতা অভিষেক মানু সিংভি।

বুধবার সকালে এক টুইটবার্তায় এই নেতা প্রশ্ন রাখেন, ভারতকে ৫ লাখ কোটি ডলারের অর্থনীতিতে উন্নীত করার যে প্রতিশ্রুতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার জনগণকে দিয়েছে তা কীভাবে পূরণ করবে?

বিজ্ঞাপন

টুইটে অভিষেক মানু বলেন, ‘মোদিজির টুইটার ফলোয়ার ৫ কোটি ছাড়িয়ে গেছে। দেশের অর্থনীতিও নাকি ৫ লাখ কোটি (মার্কিন ডলার) ছাড়িয়ে যাবে, কিন্তু কীভাবে? তরুণরা চাকরি পাচ্ছে না, আপনারা কি এর জন্যও বিরোধী দলকে দায়ী করবেন?  উবার, ওলা এসে সব ধ্বংস করে দিয়েছে।’

মোদির অর্থনীতির ভাষাকে ‘মোদিনোমিক্স’, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের অর্থনীতির ভাষাকে ‘নির্মলানোমিক্স’ এবং জনগণের অর্থনীতির ধারণাকে ‘পাবলিকোনোমিক্স’ নাম দিয়ে আরেকটি টুইটে তিনি লিখেছেন: ‘যা কিছু ভালো ঘটেছে, সেটা আমরা করেছি (মোদিনোমিক্স)। খারাপ যা কিছু ঘটেছে, সেটা অন্যরা ঘটিয়েছে (নির্মলানোমিক্স)। তাহলে জনগণ আপনাদের নির্বাচিত করেছে কেন (পাবলিকোনোমিক্স)?’

বিজ্ঞাপন

আগের দিন ভারতের অর্থমন্ত্রীর একটি উক্তির সূত্র ধরে অভিষেক টুইটগুলো করেন।

উবার ওলা-ভারতের অর্থনীতিমঙ্গলবার চেন্নাইয়ে এক অনুষ্ঠানে দেয়া ভাষণে নির্মলা সীতারমন বলেছিলেন, ভারতের তরুণ প্রজন্ম কিস্তিতে নতুন গাড়ি কেনার চেয়ে বহুজাতিক কোম্পানি উবার এবং ভারতীয় কোম্পানি ওলা’র গাড়ি ব্যবহার করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে, যা দেশের মোটরযান শিল্পে প্রভাব ফেলছে।

‘বিশেষ করে অটোমোবাইল খাত বেশ কিছু জিনিসে প্রভাবিত হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে বিএস৬ বা ভারত স্টেজ ৬ আন্দোলন, নিবন্ধন ফি সংক্রান্ত জটিলতা যেটি আগামী জুন পর্যন্ত স্থগিত রাখা হয়েছে এবং তরুণ প্রজন্মের মানসিকতা। তারা এখন গাড়ি কিনতে কিস্তি দেয়ার পেছনে টাকা লাগাতে আগ্রহী নয়, তার চেয়ে বরং ওলা বা উবারের গাড়ি ব্যবহার করতে অথবা মেট্রোতে চড়তেই বেশি পছন্দ করে,’ বলেন তিনি।

তরুণ প্রজন্মের মধ্যে দুই এবং চার চাকার মোটরযান কেনার আগ্রহ কমে যাওয়ার ফলে সম্প্রতি এই যান প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর বিক্রি কমে গেছে দুই অংক পর্যন্ত। এর কারণে আগের চেয়ে ভারতের মোটরযানের ব্যবসা কমে এসেছে।

Bellow Post-Green View