চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আসল লড়াই শুরু’

প্রথম দুই ম্যাচে মাত্র এক পয়েন্ট পেয়ে গ্রুপ টেবিলে সবার শেষে থাকা আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার আশা ভীষণ কমে এসেছিল। সেখান থেকে কাতারকে হারিয়ে কিছুটা অপ্রত্যাশিতভাবেই গ্রুপের দুই নম্বরে উঠে এসে শেষ আটে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।

কিছুটা অপ্রত্যাশিত এই কারণে যে, তাদের গ্রুপে দু’নম্বরে থাকা প্যারাগুয়ে একই দিন যদি কলম্বিয়ার কাছে ০-১ না হারত, তাহলে জিতেও মেসিদের গ্রুপের তিন নম্বরে শেষ করতে হত। তখন কোয়ার্টারে উঠতে তাকিয়ে থাকতে হত, অন্যগ্রুপের খেলার ফলের দিকে। শুক্রবার কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ ভেনেজুয়েলা।

বিজ্ঞাপন

সোমবার মেসির জন্মদিন ছিল। রোববার রাতে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেই আর্জেন্টিনা শিবিরে মেসির জন্মদিন পালন করা হয়। ৩১ লেখা মোমবাতি নিভিয়ে কেক কাটেন বার্সেলোনার মহাতারকা। মেসি ৩২ বছরে পা রাখলেন।

বিজ্ঞাপন

কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা নিয়ে তার মন্তব্য, ‘আমাদের কাছে কোপার লড়াই এবার শুরু হল।’

এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন কাতারের বিরুদ্ধে ম্যাচ জেতাটা মেসিদের কাছে বেশ চ্যালেঞ্জের ছিল। সেটা নিয়ে বলতে গিয়ে মেসি বলেন, ‘আমাদের আত্মবিশ্বাস ফেরানোর জন্য এই ম্যাচটা জেতা খুব জরুরি ছিল। আমরা খুব ভালো খেলেই ম্যাচটা জিতেছি। কোপা জেতার জন্য সামনের ম্যাচগুলোতেও আমাদের এমনই ভালো খেলতে হবে।’

সঙ্গে এলএম টেনের সংযোজন, ‘কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠাটা আমাদের কাছে প্রেরণা। এবার আমাদের কাছে এক অন্য কোপা শুরু হল।’