চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘অ্যাভেঞ্জার্স’-এর মুখোমুখি বাংলাদেশি ‘আলফা’

ঢাকায় তিনটি প্রেক্ষাগৃহ ও চট্টগ্রামে একটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে নাসির উদ্দিন ইউসুফের তৃতীয় ছবি ‘আলফা’…

সারা বিশ্বজুড়েই অ্যাভেঞ্জার্স উন্মাদনা! গোটা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বাংলাদেশেও মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’। আর একই দিনে মুক্তি পেতে যাচ্ছে নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চুর তৃতীয় ছবি ‘আলফা’। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম-এর প্রযোজনায় ছবিটি রাজধানীর তিনটি প্রেক্ষাগৃহে ও চট্টগ্রামের মিনিপ্লেক্সে মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

এমন তথ্যই চ্যানেল আই অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন ইমপ্রেস টেলিফিল্মের কনসালটেন্ট (ফিল্ম) আবু শাহেদ ইমন। তিনি জানান, ‘আলফা’ মোট চারটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে। রাজধানীতে বসুন্ধরায় স্টার সিনেপ্লেক্স, সীমান্ত সম্ভার স্টার সিনেপ্লেক্স ও শ্যামলী সিনেমায় মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। ঢাকার বাইরে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে চট্টগ্রাম মিনিপ্লেক্সে।

বিজ্ঞাপন

মুক্তির দুদিন আগেই মার্ভেল স্টুডিওর বহুল প্রতীক্ষিত এই ছবির প্রথম দিনের টিকেট বিক্রি ফুরিয়েছে। উপমহাদেশেও ‘অ্যাভেঞ্জার্স’-এর জোয়ার। ভারতে টিকেটের জন্য দর্শকের হাহাকারের খবরও সোশাল মিডিয়ার তরফে কারো অজানা নয়। এদিকে ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’-এর টিকেটের জন্য বসুন্ধরা সিনেপ্লেক্সে রীতিমত হাহাকার! অনেকে অগ্রীম টিকেটও পাননি।

তাহলে ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’-এর সময়ে ‘আলফা’ মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত কি ঠিক হলো? এমন প্রশ্নে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইমপ্রেসের তরফে জানানো হয়, ‘অ্যাভেঞ্জার্স’-এর দর্শক আর ‘আলফা’র দর্শক পুরোপুরি আলাদা। কিংবা যারা নাসির উদ্দিন ইউসুফের ছবিটি দেখার তারা ‘অ্যাভেঞ্জার্স’ দেখেও ‘আলফা’ দেখবেন।

তৃতীয় বিশ্বের একজন শহুরে নাগরিককে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে ‘আলফা’ চলচ্চিত্রের কাহিনি। এখানে ফুটে উঠবে যান্ত্রিক শহরের বাস্তবতার সঙ্গে মানিয়ে নেয়া ও অন্তর্দ্বন্দ্ব নিয়ে বেঁচে থাকা এক চিত্রশিল্পীর জীবন।

ছবির মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন নবীন অভিনয়শিল্পী আলমগীর কবির ও দোয়েল ম্যাশ। এ ছাড়াও পরিচিত মুখ হিসেবে দেখা যাবে প্রবীণ অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানকে। ছবিতে অভিনয় করেছেন হীরা চৌধুরী, ইশরাত নিশাত, মোস্তাফিজ নূর ইমরান ও ভাস্কর রাসা। প্রধান চরিত্রদের ছাড়া অন্যান্য অভিনয় শিল্পদের নির্বাচন করা হয়েছে অডিশনের মাধ্যমে। বেশির ভাগই মঞ্চ থেকে এসেছেন বলে জানিয়েছেন নির্মাতা নাসির উদ্দিন ইউসুফ।

ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ব্যানারে নির্মিত এ সিনেমার কাহিনি, চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করছেন নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু। সম্পাদনায় আছেন ক্যাথরিন মাসুদ। ছবির কার্যনির্বাহী প্রযোজক হিসেবে আছেন এশা ইউসুফ।

Bellow Post-Green View