চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অযত্নে ধ্বংস হচ্ছে ৫শ’ বছরের পুরানো গোয়ালদি মসজিদ

Nagod
Bkash July

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের ঐতিহাসিক নিদর্শন ৫শত বছরের পুরোনো গোয়ালদি মসজিদ। পনের শতকে স্বাধীন সুলতান আলাউদ্দিন হোসেন শাহ’র আমলে নির্মিত মসজিদটি পর্যটকদের আকর্ষণের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু। সুলতানি আমলের গৌরবোজ্জ্বল মুসলিম ঐতিহ্যের অন্যতম সাক্ষী এ মসজিদ।

Reneta June

১৫১৯ খৃষ্টাব্দে মোল্লা হিজবার আকবর খান এ মসজিদ নির্মাণ করেন।

 

এক গম্বুজবিশিষ্ট এ মসজিদের চার কোনায় চারটি টাওয়ার রয়েছে। টাওয়ারগুলো সুলতানি রীতিতে তৈরি। মসজিদের ভেতর ও বাইরের দেয়ালে পাথর এবং ইটের ওপর আরব্য অলংকরণে নানান নকশা ও কারুকাজ রয়েছে। প্রায় ১ দশমিক ৬ ১ মিটার পুরুত্বের দেয়ালে পৃষ্ঠভাগে টেরাকোটা নান্দনিক অলংকরণে খোদাই করা।

 

স্বাধীন সুলতান আলাউদ্দিন হোসেন শাহ’র আমলে বাংলার শিক্ষা, শিল্প ও সাহিত্যে ব্যাপক উৎকর্ষতা লাভ করেছিল। তারই নিদর্শন এই গোলালদি মসজিদ। ১৯৭৫ সালে এই মসজিদটি সংরক্ষিত পুরাকৃর্তী হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। এরপর কিছুটা পরিস্কার পরিচ্ছন্ সামান্য সংস্কার করে মসজিদটি সংরক্ষনের উদ্যোগ নেয় বাংলাদেশ সরকার। বর্তমানে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর মসজিদটি দেখভালের দায়িত্বে রয়েছে।

 

কিন্তু অযত্ন অবহেলায় ঐতিহাসিক এই মসজিদটি এখন ধ্বংসের পথে। দেয়ালের ইট ও আস্তরণ খুলে পড়ে যাচ্ছে। খোদাইকৃত টেরাকোটা অলংকরণও নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। দেয়ালে জন্মাচ্ছে গাছ লতা গুল্ম। মসজিদটির মুলফটক তালাবদ্ধ থাকলেও ডানদিকে খিলানের গ্রিল খুলে পড়ে আছে। দেয়ালেও শ্যাওলা জমেছে। মসজিদের চারপাশে ঘাস-লতাপাতা বেড়ে ভৌতিক রূপ ধারণ করেছে।

ঐতিহাসিক এই নিদর্শনের এমন করুণ পরিণতিতে হতাশ পর্যটকরা।

BSH
Bellow Post-Green View