চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘অধিনায়ক’ কোহলি এখন সবচেয়ে সফল

অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে রোববার রাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩১৮ রানের বিশাল এক জয়ে দুই টেস্টের সিরিজে এগিয়ে গেছে ভারত। আর নেতৃত্বে জয়ের বিচারে স্বদেশী সাবেক অধিনায়কদের মধ্যে সর্বোচ্চ শিখরে বসেছেন বিরাট কোহলি।

সাদা পোশাকে শেষ জয়টির পর পরিসংখ্যান বলছে দেশে কিংবা বিদেশে, ভারতের সফলতম টেস্ট অধিনায়ক এখন কোহলি। ছাড়িয়ে গেছেন মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন, সৌরভ গাঙ্গুলি, রাহুল দ্রাবিড় বা তার সদ্য আগের মহেন্দ্র সিং ধোনিকে।

বিজ্ঞাপন

জয়ের সংখ্যায় ভারতের সফলতম টেস্ট অধিনায়ক হতে বিরাট কোহলির লাগল ৪৭ টেস্ট। যাতে নেতৃত্ব দিয়ে ২৭টি জয় এনেছেন তিনি। ধোনির নেতৃত্বে ৬০ টেস্টে ২৭টি জয়ই পেয়েছিল ভারত। আপাতত সফলতায় এই জায়গায় যৌথভাবে বসে দুজনে।

ভারতের বদলে যাওয়ার শুরু যে সৌরভ গাঙ্গুলির নেতৃত্বে, তার আমলে ৪৯ টেস্টে ২১ জয় আছে দেশটির। আর মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনের অধীনে ৪৭ টেস্টে ১৭ জয় লেখা ইতিহাসে।

বিজ্ঞাপন

সবমিলিয়ে ভারতের হয়ে টেস্ট জয়ের সফলতম চেয়ারটি একার করে নিতে উইন্ডিজ সিরিজেই সুযোগ পাচ্ছেন কোহলি। তবে একটি বিচারে তিনি ইতিমধ্যেই ছাড়িয়ে গেছেন আগের সব স্বদেশী সাবেক দলনেতাকেই। সেটি দেশের বাইরে ভারতের সফলতম টেস্ট অধিনায়ক হয়ে।

কোহলির নেতৃত্বে দেশের বাইরে ২৬ টেস্টে ১২ জয় ভারতের। অ্যান্টিগায় ছাড়িয়ে গেছেন গাঙ্গুলিকে, যার অধীনে ২৮ টেস্ট খেলে ১১ জয় দেখেছিল ভারত। আর ধোনির নেতৃত্বে ৩০ টেস্টে নেমে বিদেশে কেবল ৬ জয় পেয়েছিল দেশটি। দ্রাবিড়ের নামের পাশে সেই সংখ্যাটা ১৭ টেস্ট ৫ জয়।

অ্যান্টিগায় প্রথম ইনিংসে ২৯৭ রান তুলে অলআউট হয়েছিল ভারত। জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২২২ রানে গুটিয়ে যায় উইন্ডিজ। দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ৩৪৩ রানে ইনিংস ঘোষণা করে সফরকারীরা। পরে ৪১৯ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ১০০ রানেই প্যাকেট স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয় ইনিংসে কোহলি করেছেন ফিফটি, আজিঙ্কা রাহানে সেঞ্চুরি, আর হনুমা বিহারী ৯৩ রানে ফিরেছেন। পরে বোলিংয়ে ঝড় তুলেছেন জাসপ্রিত বুমরাহ, ইশান্ত শর্মা ও মোহাম্মদ সামি। চার দিনেই ম্যাচ ভারতের ঝুলিতে আনার পথে সবচেয়ে সফল বুমরাহ। দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ ওভারে মাত্র ৭ রানে নিয়েছেন ৫ উইকেট। ইশান্তের দখলে ৩১ রানে ৩ উইকেট, আর ১৩ রানে ২ উইকেট নিয়ে তাদের যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন সামি।

Bellow Post-Green View