চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
ব্রাউজিং ট্যাগ

ছায়ানট

ছায়ানটের ‘হাজারো কণ্ঠে দেশগান’

১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর যে সময় পাকিস্তানি সেনাবাহিনী আত্মসমর্পণ করেছিলো, ২০১৮ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঠিক সেই সময়টিকেই উদযাপনের জন্য বেছে নিলো দেশের প্রাচীন সংগীত প্রতিষ্ঠান ‘ছায়ানট’। বিজয় দিবসের ৪৭ বছর পূর্তিতে এদিন ছায়ানটের আয়োজনে হাজারো কণ্ঠে গাওয়া হয় জাতীয় সংগীত। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে আয়োজিত ছায়ানটের ‘হাজারো কণ্ঠে দেশগান’ শীর্ষক এই আয়োজনে সহযোগিতায় ছিলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ‘হাজারো কণ্ঠে দেশগান’ অনুষ্ঠানটি বিকেল পৌনে চারটায় শুরু হলেও বিজয় দিবসের বিকেল ৪টা ৩১ মিনিটে আবারও গাওয়া হয় হাজারো কণ্ঠে জাতীয়…

সাংস্কৃতিক সম্প্রীতিতে আন্তর্জাতিক সম্মাননা পাচ্ছে ‘ছায়ানট’

ভারত সরকারের সাংস্কৃতিক সম্প্রীতিতে রবীন্দ্র পুরস্কার (২০১৫) পাচ্ছে বাংলাদেশের ছায়ানট। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন জুরি বোর্ডের সর্বসম্মতিক্রমে ছায়ানটকে এ সম্মাননার জন্য মনোনীত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ঢাকাস্থ ভারতীয় হাই কমিশনের এক বিবৃতিতে এ সম্মাননা প্রদানের বিষয়টি জানানো হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, জুরি বোর্ড ২০১৪, ১৫ ও ১৬ সালের পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেছেন। ২০১৫ সালের জন্য এই বিশেষ সম্মাননা পাচ্ছে বাংলাদেশের রবীন্দ্রচর্চার সূতিকাগার ও নেতৃস্থানীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘ছায়ানট’। এই পুরস্কারের মূল্যমান…

ছায়ানটে প্রথমবার গানের অ্যালবামের প্রিমিয়ার, দর্শকের মুগ্ধতা

চলচ্চিত্র মুক্তির আগে প্রিমিয়ার অনুষ্ঠান আয়োজনের রীতি থাকলেও ‘গানশালা’র উদ্যোগে প্রথমবার গানের প্রিমিয়ার

ছায়ানটে কানসূতা’র দ্বিতীয় আসর, গাইবেন তিন শিল্পী

দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ভিন্নধর্মী সংগীতানুষ্ঠান ‘কানসূতা’। ৩১ আগস্ট সন্ধ্যা ৭টায় রাজধানীর ছায়ানট মিলনায়তনে গানশালা’র আয়োজনে ‘কানসূতা ০০২’ শিরোনামের শ্রোতা ও শিল্পীদের এ গান-কথার আসর অনুষ্ঠিত হবে। এতে এনামুল করিম নির্ঝরের লেখা ও সুরে কামরুজ্জামান সুজনের সংগীতায়োজনে পরিবেশিত হবে ফাহমিদা নবী, সুজন এবং সুকন্যা’র গান। অনুষ্ঠানে পরিবেশিত ১৫ টি গানের এই সংকলন প্রকাশিত হবে বাংলাদেশের জিপি মিউজিক, বাংলালিঙ্ক ভাইব, রবি স্প্ল্যাশ, ভারতের টাইমস মিউজিক, ও গানশালার ইউটিউব চ্যানেলে। ‘কানসূতা ০০২’ প্রসঙ্গে জনপ্রিয় শিল্পী…

চেন্নাইয়ে নৃত্য উৎসবে প্রশংসিত বাংলাদেশের মৌলি

‘অ্যাসোসিয়েশন অব ভরতনাট্যম আর্টিস্ট অব ইন্ডিয়া’-এর আয়োজনে ‘আভায় প্রবাসী উৎসব’-এ বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি নৃত্যশিল্পী মৌলি

ছায়ানটের নজরুল-উৎসব ২৯ ও ৩০ জুন

বিগত বছরগুলোর মতো এবারও ছায়ানটে আয়োজিত হতে যাচ্ছে নজরুল উৎসব। আগামী ১৫ ও ১৬ আষাঢ় (২৯ ও ৩০ জুন), শুক্র ও শনিবার দুইদিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে ছায়ানটের নজরুল-উৎসব। সন্ধ্যা ৬ টা ৩০মিনিটে ছায়ানট মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠান শুরু হবে। কাজী নজরুল ইসলামের জীবনদর্শন আরো ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে দিতে ১৪১৬ বঙ্গাব্দ থেকে জাতীয় কবিকে ঘিরে বার্ষিক উৎসবের আয়োজন শুরু করে ছায়ানট। প্রথম দুই বছরের আয়োজন ছিল ছায়ানটের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কবি সুফিয়া কামালের জন্মবার্ষিকীকে উৎসর্গ করে ‌সুফিয়া কামাল স্মারক নজরুল-উৎসব হিসেবে। এই আয়োজন এখন নজরুল-উৎসব হিসেবে…

ছায়ানটের ‘ভাষা-সংস্কৃতির আলাপ’ পঞ্চম আবর্তনে ভর্তি

ছায়ানটের এক বছর মেয়াদী ‘ভাষা-সংস্কৃতির আলাপ’-এর পঞ্চম আবর্তনের আবেদনপত্র বিতরণ শুরু হয়েছে। সাহিত্য ও শিল্প বিষয়ক চর্চা ও পরস্পর বিনিময়ের সুনির্দিষ্ট এই কর্মসূচিতে ক্লাস নেবেন মুস্তাফা মনোয়ার, মোহাম্মদ আজম, সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, ফকরুল আলম, গালিব আহসান খান, ম.হামিদ, ড. ফওজিয়া মান্নান, মৃত্তিকা সহিতা, সন্‌জীদা খাতুন প্রমুখ। ১৪ দিন পর পর প্রতি শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া ছটায় এই বৈঠক বসবে বলে ছায়ানটের পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়েছে। বুধবার ও জাতীয় ছুটির দিন ব্যতীত প্রতিদিন বেলা ৩টা থেকে ৭টায় ছায়ানট অভ্যর্থনা…

রমনা বটমূলে ছায়ানটের বর্ষবরণ

রমনা বটমূলে ছায়ানট আয়োজিত ১৪২৫ এর বর্ষবরণ অনুুষ্ঠিত হয়েছে। বংশীবাদন, গান, কবিতায় বরণ করে নেওয়া হয় নতুন বছরকে। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে নানান আয়োজনে নতুন বছরকে বরণ করে নিতে আগে থেকেই প্রস্তুতি ছিলো ছায়ানটের। বর্ষবরণের পাশাপাশি দেশের মানুষকেও নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানায় ছায়ানট।  সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যে-মাটি আমাদের পায়ের তলার আশ্রয়, জন্মের শুভক্ষণে সেই মাটিতেই ভূমিষ্ঠ হয়েছি আমরা। জন্মসূত্রেই এ মাটি আমাদের একান্ত আপন। সেই মাটির বুকে শিকড়ের মতো পা ডুবিয়ে মাটি-মাতাকে জানব আমরা। এমন স্বভাবসম্মত প্রক্রিয়ায়…

ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে রমনা বটমূলে ছায়ানটের বর্ষবরণ পর্ব

বরাবরের মতো এবারেও রমনার বটমূলে বাঁশিতে ভোরের রাগালাপ দিয়ে ভোর সোয়া ছয়টায় শুরু হবে ছায়ানট আয়োজিত বর্ষবরণের ৫১তম আয়োজন। ছায়ানটের পক্ষ থেকে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বাংলা ১৪২৫ সন বরণ আয়োজনে সম্মেলকের গাইয়েসহ দেড়শতাধিক শিল্পীর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠান চলবে প্রায় দুই ঘণ্টা। ১৬টি একক গান, ১২টি সম্মেলক গান, ২টি আবৃত্তি দিয়ে সাজানো অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হবে ছায়ানট-সভাপতি সন্‌জীদা খাতুনের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মধ্য দিয়ে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশময় সকল কর্মকাণ্ডের মূল চালিকাশক্তি হলেও গতিময়…

প্রাণের খেলায় ছায়ানটে রথীন্দ্রনাথ রায়

‘ছোটদের বড়দের সকলের/ গরীবের নিঃস্বের ফকিরের/ আমার এ দেশ/ সব মানুষের’ কিংবা ‘তীর হারা এই ঢেউয়ের সাগর’ গানের হৃদয় চেরা টানের রথীন্দ্রনাথ রায়। ১৯৭৯ ও ৮১ সালে দুইবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত রথীন্দ্রনাথ রায়  ৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে অনুপ্রেরণার অন্যতম ঘাঁটি হয়ে ওঠা স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম কণ্ঠযোদ্ধা। ভাওয়াইয়া শিল্পী রথীন্দ্রনাথ রায় প্রেরণাসঞ্চারী দেশাত্মবোধক গান চর্চার পাশাপাশি ভজন, কীর্তন, রামপ্রসাদী, শ্যামাসংগীত, ভাটিয়ালি, মুর্শিদী, মারফতি, লালনসহ সিলেটের গীতিকবিদেরগান গেয়ে থাকেন। ৯৪ সালে ২১শে পদক প্রাপ্ত…