চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নভেম্বরে দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির শর্তে অস্কারে যাচ্ছে ‘রেহানা’

৯৪তম অস্কারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’

অস্কারের ৯৪তম আসরে ‘বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম’-বিভাগে বাংলাদেশের ছবি হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করবে আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ পরিচালিত বহুল আলোচিত সিনেমা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছে ৯৪তম অস্কার বাংলাদেশ কমিটি।

প্রতি বছরের মতো এ বছরও অস্কারে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র আহ্বান করে অস্কার কমিটি। বাছাই প্রক্রিয়ায় কোন সিনেমা অংশ নিতে পারবে, শর্ত হিসেবে উল্লেখ ছিলো, ‘চলতি বছরের ১ জানুয়ারির পর মুক্তি পাওয়া বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে ধারাবাহিকভাবে ৭ দিন প্রদর্শিত ইংরেজি সাবটাইটেলসহ যেকোনো পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বাছাই প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।’

যেহেতু ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সিনেমাটি এখনও দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি, ফলে এ বিষয়ে অস্কার কমিটি তাদের বক্তব্য স্পষ্ট করে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ‘আগামী নভেম্বরে দেশের সিনেমা হলে মুক্তি দেয়ার শর্তে অস্কারের বিদেশী ভাষার প্রতিযোগিতা বিভাগে ছবিটি মনোনীত করেছে বাংলাদেশ অস্কার কমিটি।’

বাংলাদেশ ফেডারেশন অফ ফিল্ম সোসাইটিজের উদ্যোগে গঠিত চলচ্চিত্র বাছাই কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয় গত ১৯ অক্টোবর। ঐ সভায় বিদেশী ভাষা প্রতিযোগিতা বিভাগে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য ‘রেহানা মরিয়ম নূর’কে মনোনীত করে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবছরের মতো এবারো অস্কারের ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ফেডারেশন অফ ফিল্ম সোসাইটিজ। এ লক্ষে ছবি বাছাই এর জন্য ৮ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। গত ৪ অক্টোবর বাছাই প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণের জন্য ছবি আহ্বান করা হয়। প্রতিযোগিতায় চলচ্চিত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ছিল গত ১৪ অক্টোবর বিকাল ৫ টা পর্যন্ত।

একাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেসের আয়োজনে ২০২২ সালের ২৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে ৯৪তম অস্কারের অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান। যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে ক্যালিফোর্নিয়ার ডলবি থিয়েটারে ২৪টি শাখায় দেওয়া হবে পুরস্কার। ‘বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম’ সেগুলোরই একটি।

২০০৩ সালে তারেক মাসুদ পরিচালিত ‘মাটির ময়না’ ছবিটি সেরা বিদেশী ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে অস্কারে পাঠানো হয়েছিল। এরপর দুই বছর কোন বাংলাদেশি ছবি অস্কারের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেনি। ২০০৬ সাল থেকে প্রতি বছরই বাংলাদেশ থেকে একটি চলচ্চিত্র অস্কারের জন্য পাঠানো হচ্ছে। ২০০৬ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত অস্কারে পাঠানো সিনেমা তিনটি হচ্ছে হুমায়ূন আহমেদের শ্যামল ছায়া, আবু সাইয়ীদের নিরন্তর এবং গোলাম রাব্বানী বিপ্লবের স্বপ্নডানায়।

২০২০ সালে বাংলাদেশ থেকে অস্কারে পাঠানো হয় ১১ নির্মাতার অমনিবাস ছবি ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত এই সিনেমাটির ১১টি গল্প মূলত ঢাকা শহরে বাস করা এগারো ধরনের মানুষদের প্রতিনিধিত্ব করেছে। শহরের বুকে তাদের প্রত্যেকের জীবনযুদ্ধে টিকে থাকার যে যন্ত্রণা, তা দেখানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন