আবারও চীনে জিমের ছাদ ধস, নিহত ৩

বিজ্ঞাপন

কয়েক মাসের ব্যবধানে চীনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ হেইলংজিয়াংয়ে আরেকটি জিমের ছাদ ধসে পড়েছে। এই ঘটনায় ৩ জন নিহত হয়েছে। এই বিষয়ে চীনা জনগণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (৬ নভেম্বর) রাতে এই ঘটনাটি ঘটে। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, কয়েকদিনের অসময়ের ঠান্ডা আবহাওয়া এবং তুষারপাতের জন্য এমন ঘটনা ঘটেছে। নিহতদের পরিচয় এখনও প্রকাশ করা হয়নি, তবে শিশুরা সেই সময়ে জিমের ভিতরে ছিল বলে জানা গেছে।

ঘটনার ভিডিওতে দেখা গেছে, উদ্ধারকারীরা তুষার দিয়ে ঢাকা ধ্বংসস্তূপের মধ্য দুর্ঘটনায় জীবিতদের সন্ধান করছে। চীনা সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপকভাবে শেয়ার করা আরেকটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি বরফের রাস্তায় একজন মহিলা চিৎকার করে ভবনের দিকে ছুটে আসছেন। তার কণ্ঠে শোনা যাচ্ছে “আমার ছেলে! আমার ছেলে সেখানে আছে।”

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে, চীনের জিয়ামুসি শহরের ইউচেং জিম স্টেডিয়ামের ভিতরে ৩ জন নিহত এবং একজন গুরুতর আহত হয়েছেন। তারা জিমের দায়িত্বে থাকা একজন ব্যক্তিকে আটক করেছে। দ্বিতীয় তলা ধসের কারণ কী তা এখনও স্পষ্ট নয়।

দুর্ঘটনার খবর অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে, অনেকেই চলতি বছরের শুরুর দিকে চীনে আরেকটি জিমের ছাদ ধসের সাথে তাৎক্ষণিক তুলনা করেছেন যেখানে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

গত জুলাই মাসে, কুইকিহার শহরের একটি স্কুল জিমের কংক্রিটের ছাদ কয়েক দিনের প্রবল বৃষ্টির পর ধসে পড়ে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঠিকাদারদের রেখে যাওয়া নির্মাণসামগ্রীর কারণে ছাদের ওজন কমে গেছে এবং ঘটনার পর এলাকার অন্যান্য ভবনগুলো পরীক্ষা করা হয়েছে।

বাসিন্দারা তুষারঝড়ের পরিস্থিতি সহ্য করছেন। স্কুল বন্ধ এবং কয়েক ডজন ফ্লাইট এবং ট্রেন বাতিল করতে বাধ্য করেছে রাষ্ট্র। তীব্র আবহাওয়ার সতর্কতায় স্থানীয়দের ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, হেইলংজিয়াং-এ আরও তুষারঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে এবং বরফের রাস্তা এবং বিদ্যুতের লাইন ভেঙে যাওয়ার বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

চীনজিম ছাদধসনিহত ৩