চেন্নাইগামী ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শোক

ভারতের ওড়িশায় চেন্নাইগামী যাত্রীবাহী ট্রেন দুর্ঘটনায় দুই শতাধিক মানুষের মৃত্যু এবং হাজারও মানুষ আহত হওয়ার ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার ৩ জুন এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় আমি গভীর শোক জানাচ্ছি। একইসঙ্গে আহতদেরও দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’

শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী দুর্ঘটনায় নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন ও তাদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, খড়্গপুর ডিভিশনের সিগন্যালিং রুমের ভিডিওতে দেখা গেছে, সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটের দিকে ওড়িশার বালাসোর জেলার বাহানগা বাজার স্টেশন পেরিয়ে লুপ লাইনে ঢুকে পড়ে যাত্রীবাহী করমণ্ডল এক্সপ্রেস। এই লুপ লাইনে আগে থেকেই একটি মালগাড়ি দাড়িয়েছিল। আসলে লুপ লাইনে না ঢুকে মেইন লাইনে ধরে ভুবনেশ্বরের দিকে বেরিয়ে যাওয়ার কথা ছিল করমণ্ডল এক্সপ্রেসের। সেই ভুলের জেরেই ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে।

সর্বশেষ আপডেট অনুযায়ী, দুর্ঘটনায় ২৩৮ জন যাত্রীর লাশ উদ্ধার হয়েছে। আহত ৯০০ জনেরও বেশি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ দুর্ঘটনার উদ্ধার কাজ শেষ হয়েছে। শেষ পর্যন্ত ট্রেনটির বগি কেটে যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়েছে।

অন্যদিকে ভারতের চেন্নাইগামী যাত্রীবাহী রেল করমণ্ডল এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নাগরিকদের সার্বিক যোগাযোগের জন্য কলকাতাস্থ বাংলাদেশ উপহাইকমিশন হটলাইন নাম্বার দিয়েছে। নাম্বারটি হচ্ছে- +৯১৯০৩৮৩৫৩৫৩৩ (হোয়াটসঅ্যাপ)। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উপহাইকমিশন জানিয়েছে, বাংলাদেশিরাও সাধারণত চিকিৎসার জন্য ট্রেনটিতে যাতায়াত করে থাকেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হসিনাভারতের ট্রেন দুর্ঘটনাশোক প্রকাশ