মধ্যাহ্ন বিরতির আগে সাজঘরে দুই কিউই ওপেনার

সিলেট টেস্টের দ্বিতীয় দিনের প্রথম বলেই শরীফুল ইসলামকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টিম সাউদি। তাতে স্কোরবোর্ডে আর কোনো রান যোগ না করেই বাংলাদেশের ইনিংস থামে ৩১০ রানে। ব্যাট করতে নেমে কিউইদেরও শুরুটা আহামরি হয়নি। দুই ওপেনারকে হারিয়ে দেখেশুনে খেলছে ব্ল্যাক ক্যাপস বাহিনী।

মধ্যাহ্ন বিরতিতে যাওয়ার আগে ২৪ ওভার শেষে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৭৮ রান। কেন উইলিয়ামসন ৩৫ বলে ২৬ রান করে ক্রিজে আছেন। তাকে সঙ্গ দেয়া হেনরি নিকোলস করেছেন ২৫ বলে ১১ রান।

বুধবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে কিউইদের ইনিংসের ১৩তম ওভারে দলীয় ৩৬ রানে টম ল্যাথামকে ফেরান তাইজুল ইসলাম। বাঁহাতি স্পিনারকে সুইপ খেলতে গিয়ে নাঈম হাসানের হাতে তিনি ক্যাচ দেন। ল্যাথামের ব্যাট থেকে আসে ৪৪ বলে ৩ চারে ২১ রান।

উইকেটে থিতু হতে পারেননি আরেক ওপেনার ডেভন কওনয়ে। ১৫তম ওভারে মেহেদী হাসান মিরাজের অফ স্ট্যাম্পের বাইরের বলটি রক্ষণাত্মকভাবে খেলেন বাঁহাতি ওপেনার। বল তার ব্যাটের কানায় লেগে প্যাডে আঘাত হেনে সিলি পয়েন্টে যায়। ডান দিকে ঝাঁপিয়ে এক হাতে দারুণ ক্যাচ নেন অভিষিক্ত শাহাদাত হোসেন। ড্রেসিংরুমে ফেরার আগে ৪০ বলে ১২ রান করেন কনওয়ে।

এর আগে মঙ্গলবার টেস্টের প্রথম দিন টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে স্বাগতিকরা ৯ উইকেটে ৩১০ রান তুলতে সক্ষম হয়। দ্বিতীয় দিনে এক বলের বেশি নাজমুল হোসেন শান্তর দলের ইনিংস স্থায়ী হয়নি।

টাইগারদের হয়ে ১৬৬ বলে ১১ চারে ৮৬ রানে থামেন জয়। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশকে অনেকটা পথ টানেন ২৩ বর্ষী ওপেনার। ৭৮ বলে ৪টি চারে ৩৭ রান করে ফেরেন মুমিনুল। আক্রমণাত্মক ব্যাটিক করা শান্ত ৩৫ বলে দুই চার ও ৩ ছক্কায় ৩৭ রান করেন।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সর্বাধিক ৪ উইকেট শিকার করেন গ্লেন ফিলিপস। দুটি করে উইকেট পান কাইল জেমিসন ও আজাজ প্যাটেল।

উইলিয়ামসননিউজিল্যান্ডবাংলাদেশবাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড টেস্টমিরাজলিড স্পোর্টসশান্তসিলেট টেস্ট