ধারাবাহিক হামলার শিকার হচ্ছেন মনোনয়ন বঞ্চিত এমপি পঙ্কজের অনুসারীরা

বিজ্ঞাপন

মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পর থেকে একের পর এক হামলার শিকার হচ্ছেন বরিশাল ৪ (হিজলা-মেহেন্দিগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ এর অনুসারীরা। তারই ধারাবাহিকতায় এবার মেহেন্দিগঞ্জ পৌর এলাকার রসিক চন্দ্র (আর.সি) কলেজে ঢুকে তার আত্মিয় ও কলেজের অফিস সহকারী বিকাশ দেবনাথকে মারধর করেছে একদল যুবক।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার ৩০ নভেম্বর বেলা ১২ দিকে মারধরের পর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেলে সেখানেও হানা দেয় হামলাকারীরা। বিকাশ দেবনাথ স্থানীয় সংসদ সদস্য পঙ্কজ নাথের নিকটাত্মীয়।

বিকাশ দেবনাথ বলেন, তিনি কলেজের অফিস কক্ষে বসা ছিলেন। বেলা ১২টার দিকে জিন্নাহ খান’র নেতৃত্বে ১০-১২ জন যুবক এসে প্রথমে তাকে গালাগালি ও একপর্যায়ে লাঠিসোটা দিয়ে পেটাতে শুরু করে। কলেজের শিক্ষকরা এসে তাকে উদ্ধার করেছেন। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেলে সেখানেও হানা দেয় হামলাকারীরা। পরে নিরাপত্তার জন্য বাড়িতে চলে আসেন। বিকাশ দাবী করেন, হামলাকারীরা তার টেবিলের ড্রয়ার থেকে ৫৫ হাজার টাকা নিয়ে গেছে। তার উপরে হামলার নেতৃত্ব দিয়েছেন জিন্নাহ খান। যিনি এলাকায় পঙ্কজবিরোধী হিসাবে পরিচিত।

কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম জানান, কলেজ জাতীয়করন সংক্রান্ত কাজে তিনি এক সপ্তাহের বেশী ঢাকায় অবস্থান করছেন। একদল যুবক হামলা করার জন্য কয়েকদিন যাবত কলেজে ঢুকে তাকেও খুঁজছে। বৃহস্পতিবার তার অফিস সহকারী বিকাশ নাথের ওপর হামলা করা হয়। বিষয়টি তিনি কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী অভিযুক্ত হামলাকারী জিন্নাহ খান বলেন, কলেজের গেটে একদল যুবকের সঙ্গে বিকাশ দেবাথের কথাকাটাকাটি ও তার কলার ধরেছিল যুবকরা। এসময় অন্যন্য শিক্ষকরা এসে ছাড়িয়ে দেন। তিনি পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে তা জেনেছেন মাত্র।

এ বিষয়ে মেহেন্দিগঞ্জের ইউএনও কাজী আনিসুল ইসলাম জানান, অফিস সহকারীকে মারধরের বিষয়ে মৌখিক অভিযোগ পেয়েছেন। লিখিত অভিযোগ এখনও পাননি।

পঙ্কজ নাথ বরিশাল-৪ (মেহেন্দিগঞ্জ-হিজলা) মনোনয়নবঞ্চিত হলে গত রোববার থেকে দুই উপজেলায় তার অনুসারীদের ওপর ধারাবাহিক হামলা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা হচ্ছে। এ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মি আহমেদ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এমপি পঙ্কজবরিশালমনোনয়ন বঞ্চিতহামলার শিকার