‘টাইম অ্যাথলেট অব দ্য ইয়ার’ মেসি

আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপ জয়ের পর ইউরোপ ছেড়ে লিওনেল মেসি যোগ দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারের ক্লাব ইন্টার মিয়ামিতে। ক্লাবটিকে হারের বৃত্ত থেকে বের করে জয়ের অভ্যাসে পরিণত করেছেন কিংবদন্তি। ক্লাবটির ইতিহাসের প্রথম ট্রফি লিগস কাপও এসেছে মেসির হাত ধরে। সুসময়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত সাময়িকী ‘টাইম’র ২০২৩ সালের সেরা অ্যাথলেট নির্বাচিত হলেন মেসি।

গত জুলাইয়ে মিয়ামিতে যোগ দিয়ে ক্লাবটিকে লিগস কাপ জেতান মেসি। টুর্নামেন্টে ৭ ম্যাচে ১০ গোল করেন মহাতারকা আর্জেন্টাইন। ইউএস ওপেন কাপের ফাইনালে ওঠায়ও বড় অবদান ছিল মেসির। যদিও ফাইনালে হেরেছিল টাটা মার্টিনোর দল। চোটের কারণে মেসি খেলতে পারেননি। মিয়ামির হয়ে প্রথম মৌসুমে ১৪ ম্যাচে ১১ গোল করেছেন ৩৬ বর্ষী মেসি।

যুক্তরাষ্ট্রের সাময়িকী টাইম-এর বর্ষসেরা অ্যাথলেট হতে ফুটবল প্রতিদ্বন্দ্বী আর্লিং হালান্ড ও কাইলিয়ান এমবাপেকে পেছনে ফেলেছেন মেসি। দৌড়ে ছিলেন বছরে তিনটি গ্র্যান্ড স্লাম জেতা টেনিস কিংবদন্তি নোভাক জোকোভিচও। সবাইকে হার মানতে হয়েছে ফুটবল জাদুকরের কাছে।

কাতার বিশ্বকাপ জয়ের পথে আর্জেন্টিনার হয়ে ৭ গোল করেছিলেন মেসি। পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে গোল করিয়েছিলেন ৩টি। গোল্ডেন বল পুরস্কারও উঠেছিল মেসির হাতে। এতসব অর্জনের পর ক্যারিয়ারের অষ্টম ব্যালন ডি’অর ওঠে মহাতারকার শোকেসে।

২০১৯ সাল থেকে ‘অ্যাথলেট অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কার দিয়ে আসছে সাময়িকী টাইম। প্রথমবার সম্মানসূচক পুরস্কারটি পেয়েছিল দেশটির মেয়েদের ফুটবল দল। পরের বছর পেয়েছেন বাস্কেটবল তারকা লেব্রন জেমস। ২০২১ সালে পান যুক্তরাষ্ট্রের জিমন্যাস্ট সিমোন বাইলস। গতবছর জেতেন নিউইয়র্ক ইয়াঙ্কির বেসবল তারকা অ্যারন জাজ। এবার প্রথম ফুটবলার হিসেবে পেলেন মেসি।

আর্জেন্টিনাটাইম ম্যাগাজিনমিয়ামিমেজর লিগ সকারমেসিযুক্তরাষ্ট্রলিড স্পোর্টস