ইউএস ওপেনে থাকছে রাশিয়া-বেলারুশের খেলোয়াড়রা

ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের জেরে রাশিয়া ও বেলারুশের খেলোয়াড়রা উইম্বলডনের এবারের আসরে নিষিদ্ধ থাকছেন। তবে ২৯ আগস্ট নিউ ইয়র্কে হতে চলা ইউএস ওপেনে দুদেশের টেনিস তারকারাই অংশ নিতে পারবেন।

ইউএস টেনিস অ্যাসোসিয়েশনের সিইও এবং নির্বাহী পরিচালক লিউ শের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ইউএস টেনিস অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড রাশিয়া ও বেলারুশ খেলোয়াড়দের টুর্নামেন্টে নামার অনুমতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কারণ হিসেবে তাদের দেশের সরকারের কর্ম ও সিদ্ধান্তের জন্য খেলোয়াড়দের কোনো দায় না থাকার বিষয়ে ইঙ্গিত করেছেন তিনি।

‘রাশিয়া এবং বেলারুশের ক্রীড়াবিদরা নিরপেক্ষ পতাকার নিচে ফ্লাশিং মিডোসে খেলবেন। ফ্রেঞ্চ ওপেনসহ বিশ্বের বিভিন্ন টেনিস টুর্নামেন্টেও নিরপেক্ষ পতাকা ব্যবহৃত হয়েছে।’

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতি আনুগত্য রয়েছে বেলারুশ সরকারের। রাশান খেলোয়াড়দের সাথে তাই দেশটির ক্রীড়াবিদরাও পড়ছেন নিষেধাজ্ঞায়। কাতার বিশ্বকাপ বাছাই ও মেয়েদের ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপের মতো আসর থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে বেলারুশের খেলোয়াড়দের।

উইম্বলডনে রাশিয়া-বেলারুশের খেলোয়াড়দের নিষেধাজ্ঞাকে অন্যায় আখ্যা দিয়েছেন রেকর্ড ২২ বারের গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী কিংবদন্তি রাফায়েল নাদাল। বলেছেন, ‘রুশ সহকর্মীদের সাথে অন্যায্য করা হচ্ছে। ইউক্রেনে এই মুহূর্তে যা ঘটছে তা তাদের দোষ নয়। আমি তাদের জন্য দুঃখিত। আশা করিনি এমন হবে, কিন্তু দিন শেষে এটিই পরিণতি।’

বিজ্ঞাপন

ইউএস ওপেনউইম্বলডনবেলারুশরাশিয়ালিউ শেরলিড স্পোর্টস