শাকিবকে যে পরামর্শ দিলেন কাজী হায়াৎ

ব্যক্তিগত জীবনের কিছু ঘটনায় বর্তমানে আলোচনায় ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ তারকা শাকিব খান। হচ্ছেন সমালোচিত, শুনতে হচ্ছে নেতিবাচক কথাও! বিষয়টি চোখ এড়ায়নি বর্ষিয়ান নির্মাতা কাজী হায়াৎ-এর।

তাই তিনি মনে করেন, যে কাজ করলে সমালোচিত হতে হয় শাকিবের উচিত সেসব এড়িয়ে চলা। যেহেতু শাকিব সবচেয়ে চাহিদা সম্পন্ন নায়ক, তাই সামনেও তার উপর বিপদ আপাদ আঁচড় দেয়ার চেষ্টা করবে। এখন খুব সচেতন থাকতে হবে। অতীত থেকে তার শিক্ষা নেয়ার এখনই সঠিক সময়।

শাকিবকে পরামর্শ দিয়ে কাজী হায়াৎ বলেন, কর্মই মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে। সমালোচনা কখনই মানুষ মনে রাখে না। তাকে (শাকিব খান) ‘ফুল অব এনার্জি’ নিয়ে ভালো কাজে মনোযোগী হতে হবে। দর্শক নন্দিত সিনেমা উপহার দিতে হবে। আমার অভিজ্ঞতা বলছে, সে পারবে। তবে তাকে ঠাণ্ডা মাথায় ভবিষ্যৎ ভেবে কাজ করতে হবে। নায়ক হিসেবে তার যেমন ইমেজ, আমার বিশ্বাস বুঝেশুনে আগালে সে ব্যক্তি ইমেজও আবার তৈরি করবে।

পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রপরিচালক ও চিত্রনাট্যকার কাজী হায়াৎ জানান, চলচ্চিত্রে শাকিবের বেড়ে ওঠা তার চোখের সামনে। তিনি তার ভাষায় ব্যাখ্যা করলেন এভাবে,  ১৯৫৭ সালে আমাদের প্রথম চলচ্চিত্র ‘মুখ ও মুখোশ’ তৈরি হয়। সেই সময় থেকে অদ্যাবধি শাকিবের মতো সুদর্শন, সুঠাম দেহের অধিকারী, সুশ্রী, সু-অভিনেতা, সু-নাচিয়ে খুব কম এসেছে আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে। একজন প্রবীণ নির্মাতা হিসেবে আমি এটাই মনে করি।

কাজী হায়াৎ বলেন, এতো জনপ্রিয়তা পেয়েও শাকিব অনেকসময় লাগাম ছাড়া সমালোচিত হয়েছে। আমার মনে হয়, এই কারণে সে দর্শক ও সমাজের মানুষের কাছে কিছুটা বিতর্কিত হচ্ছে। কোনো মানুষ ত্রুটির উর্দ্ধে নয়। আমার বিশ্বাস, সে সচেতন থাকবে। শাকিবকে বলবো, তুমি আগে পিছে না তাকিয়ে তোমার আসল কাজটা করে যাও। এই ইন্ডাস্ট্রি থেকে সবকিছু পেয়েছো। এখন তোমার দেয়ার সময়। তুমি তোমার চেষ্টা থামিও না।

শাকিবকে উদ্দেশ্য করে দাঙ্গা, ইতিহাস, বীর ছবির এই পরিচালক বলেন, ভবিষ্যতের জন্য যেসব অশনি সংকেত মনে করবে সেগুলো পুরোপুরি এড়িয়ে চলো। কোনো সমালোচনা বা বিতর্ক তোমাকে আজকে এই অবস্থানে আনেনি। কর্মই এনেছে। সেটা ঠিকভাবে করে যাও। যারা ভালোবাসে তার জন্য কাজ করো।

অভিনয়ইতিহাসইমেজকাজী হায়াতঢাকাই সিনেমাদাঙ্গানির্মাতাপরিচালকবীরলিড বিনোদনশাকিবশাকিব খানসিনেমা