রমজানে ইয়েমেনের দুঃস্থ মানুষের খাবার সংগ্রহের সংগ্রাম

মুসলমানদের পবিত্র রমজান মাসে দরিদ্র লোকদের জন্য খাদ্য সহায়তা দেয়া ইতিহাসের ঐতিহ্য বলা যায়। এরই ধারাবাহিকতায় সিরিয়া এবং মধ্যপ্রাচ্যের কিছু দেশে, দাতব্য সংস্থা এবং স্বেচ্ছাসেবীরা কঠিন অর্থনৈতিক পরিস্থিতির মধ্যে থাকা ইয়েমেনের দরিদ্র এবং বাস্তুচ্যুতদের রমজানকে আরও সুন্দরভাবে পালন করার জন্য ইফতার এবং রাতের খাবার আয়োজন করে থাকে।

 

মানুষ ইয়েমেনের সানায় একটি দাতব্য কেন্দ্রের বাইরে খাবারের জন্য অপেক্ষা করছে (মোহাম্মদ মোহাম্মদ-সিনহুয়া)

 

একটি দাতব্য সংস্থার সদস্যরা আলজেরিয়ার তিজি ওজু প্রদেশের সিদি নামানে অভাবগ্রস্ত লোকেদের মাংস বিতরণ করছে।

 

সিরিয়ার আলেপ্পোতে একটি দাতব্য রান্নাঘরে স্বেচ্ছাসেবকরা বাস্তুচ্যুত লোকদের জন্য খাবার প্রস্তুত করছে (মনসেফ মেমারি-সিনহুয়া)

 

শ্রমিকরা ইয়েমেনের সানায় একটি দাতব্য কেন্দ্রে অভাবী লোকদের জন্য খাবার প্রস্তুত করছে (মোহাম্মদ মোহাম্মদ-সিনহুয়া)

 

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে একটি দাতব্য রান্নাঘরে স্বেচ্ছাসেবকরা গরিবদের জন্য ইফতারের খাবার রান্না এবং প্রস্তুত করে। দাতব্য রান্নাঘরগুলো ১২ বছরের দীর্ঘ সিরিয়ান যুদ্ধের সময়, বিশেষ করে এই পবিত্র মাসে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। জাতিসংঘ বলছে, প্রায় ৯০ শতাংশ সিরিয়ান দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করে (আম্মার সাফারজালানি-সিনহুয়া)
ইয়েমেনরমজান