সালাদের মধ্যে মানুষের আঙ্গুল, রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে মামলা

লাখ টাকা জরিমানা

যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাটের একটি রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক নারী। মামলার কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন, মানুষের কাটা আঙ্গুল মিশ্রিত সালাদ খেতে দেওয়া হয়েছে তাকে। সালাদ খাওয়ার পর থেকে মানসিক এবং শারিরীকভাবে অসুস্থ রয়েছেন অ্যালিসন কোজি নামের ওই নারী।

বুধবার ২৯ নভেম্বর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ৭ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের মাউন্ট কিস্কোর একটি রেস্তোরাঁ থেকে তিনি সালাদ কিনেছিলেন। যেখানে সালাদের সাথে মানুষের হাতের কাটা আঙ্গুল মিশ্রিত ছিল।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সালাদ খাওয়ার সময় ওই নারী বুঝতে পেরেছিলেন যে তিনি মানুষের আঙুলের একটি অংশ চিবিয়ে খাচ্ছেন। যা সালাদে মিশ্রিত করা হয়েছিল এবং এটিও সালাদের একটি অংশ ছিল।

মামলার অভিযোগে তিনি বলেন, ‘যখন সালাদ খাচ্ছিলেন তখন বুঝতে পেরেছি যে মানুষের আঙুলের একটি অংশ চিবিয়ে খাচ্ছি। যেটি সালাদের সাথে মিশ্রিত করা হয়েছিল।’

জানা যায়, রেস্তোরাঁর ম্যানেজার সালাদ কাটার সময় দুর্ঘটনাক্রমে তার বাম হাতের একটি আঙুল কেটে যায়। পরে ম্যানেজার হাসপাতালে গেলেও দূষিত সালাদ গ্রাহকদের পরিবেশন করা হয়।

ওয়েস্টচেস্টার কাউন্টি স্বাস্থ্য বিভাগ ঘটনাটি তদন্ত করে রেস্টুরেন্টটিকে প্রায় ৯শ’ ডলার (বাংলাদেশি টাকায় লক্ষাধিক টাকা) জরিমানা করে।

মিসেস কোজি মামলায় বলেন, দূষিত সালাদ খাওয়ার ফলে তিনি অসুস্থ রয়েছেন। তার প্যানিক অ্যাটাক, মাইগ্রেন, জ্ঞানীয় দুর্বলতা, বমি বমি ভাব, মাথা ঘোরা এবং ঘাড় ও কাঁধে ব্যথাসহ অনেকগুলো শারিরীক এবং মানসিক সমস্যা দেখা দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাটসালাদের মধ্যে আঙ্গুলসালাদের মধ্যে কাটা আঙ্গুল