বাজেটে স্বাস্থ্যের বরাদ্দ নিয়ে ‘সন্তুষ্ট’ নন মন্ত্রী

বিজ্ঞাপন

প্রস্তাবিত ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেটে স্বাস্থ্যখাতের জন্য বরাদ্দে ‘সন্তুষ্ট হতে’ পারেননি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, গত বছরের তুলনায় আগামী অর্থবছরের বাজেটে টাকার অংক বাড়লেও মানুষের স্বাস্থ্যসেবার পরিধি বাড়ায় এখাতে বাজেট আরেকটু বেশি হলে উপকার হতো।

রোববার ৪ জুন রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (নিটোর) নবনির্মিত আইসিইউর উদ্বোধন ও হাসপাতালের সেবার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জাহিদ মালেক বলেন, নতুন বাজেটে স্বাস্থ্যে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৩৮ হাজার ৫২ কোটি টাকা, যা মোট বাজেটের ৫ শতাংশ। আগের অর্থবছরে এ খাতে বরাদ্দ ছিল মোট বাজেটের ৫ দশমিক ৪ শতাংশ বা ৩৬ হাজার ৮৬৩ কোটি টাকা। স্বাস্থ্যসেবার যে পরিধি বেড়েছে সে অনুযায়ী প্রস্তাবিত বাজেটে আরও কিছুটা বাড়ানো প্রয়োজন ছিল।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চিনির ওপর ট্যাক্স বাড়ানো হলেও মিষ্টির দাম কমানো হয়েছে। মিষ্টিতে ভ্যাট দেওয়া হয়নি বলে বেশি করে মিষ্টি খেয়ে আবার ডায়াবেটিস বানানো যাবে না। যাতে মানুষের স্বাস্থ্য ভালো থাকে, সেজন্য তামাকজাত পণ্যের দাম বাড়ানো হয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবিএম খুরশিদ আলম, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি অধ্যাপক ডা. জামাল উদ্দিন চৌধুরী, নিটোরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল গনি মোল্লাহ।

এর আগে বেলা ১২টার দিকে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুর্নবাসন প্রতিষ্ঠানে সংকটাপন্ন রোগীদের সেবায় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) উদ্বোধন করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

জাতীয় বাজেট ২০২৩-২৪স্বাস্থ্যমন্ত্রী