পিছিয়ে পড়া জয় থেকে দল শিখুক: গার্দিওলা

বিজ্ঞাপন

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে ম্যানচেস্টার সিটির ঘরের মাঠে কাঁপিয়েই দিয়েছিল আরবি লেইপজিগ। প্রথমার্ধে দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় পেপ গার্দিওলার দল। দুই গোল শোধের সঙ্গে জয়সূচক তৃতীয় গোলটিও তারা আদায় করে নেয়। এমন ঘুরে দাঁড়ানোর জয় থেকে অনেক কিছু শেখার আছে বলে মনে করেন গার্দিওলা।

বিজ্ঞাপন

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাতে জার্মান ক্লাব লেইপজিগের বিপক্ষে ৩-২ গোলে জিতেছে আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। প্রতিপক্ষের মাঠে প্রথম লেগে দলটি ৩-১ ব্যবধানে জিতেছিল।

ম্যাচ শুরুর ৩৩ মিনিটের মধ্যে ২-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে ম্যানসিটি। সফরকারী লেইপজিগের হয়ে গোল দুটি করেন লইস ওপেন্ডা। বিরতি থেকে ফিরে ৫৪ মিনিটে সিটির হয়ে প্রথম গোলটি করেন আর্লিং হালান্ড। ১৬ মিনিট পর ফিল ফোডেনের গোলে ম্যাচে সমতা টানে। ৮৭ মিনিটে গোলপোস্টের সামনে থেকে লক্ষ্যভেদ করেন জুলিয়ান আলভারেজ।

জয়ের পর দারুণ উচ্ছ্বসিত গার্দিওলা। তবে শিষ্যদের সতর্কও করেছেন যেন এমন ভুল আর না হয়। এমনকি এই ভুল থেকে শিক্ষাও নিতে বলেছেন এই স্প্যানিশ কোচ।

বিজ্ঞাপন

৫২ বর্ষী গার্দিওলা বলেন, ‘আপনি যদি যোগ্যতার কথা বলেন, তবে এটা দুর্দান্ত একটি রাত। দলের এখন ১৫পয়েন্ট। ঘুরে দাঁড়ানো এমন জয় ভবিষ্যতে কাজে আসবে। এখান থেকে দল কিছু শিখুক।’

‘আপনি যদি খেলার কথা বলেন, আজ আমরা আরও ভালো করতে পারতাম। বাজেভাবে বল আমাদের জালে গেছে। ফুটবল ম্যাচে দ্বৈরথ থাকবে এটাই স্বাভাবিক। সেখান থেকে ম্যাচ বের করে নিয়ে আসতে হবে। চেলসির বিপক্ষেও অনেকটা একই রকম ঘটনা ছিল। আমরা দৃঢ় ছিলাম। যা এখানে হয়নি।’

পাঁচ ম্যাচ শেষে ‘জি’ গ্রুপে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে রয়েছে ম্যানসিটি। ৯ পয়েন্ট নিয়ে দুয়ে লেইপজিগ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গার্দিওলাচ্যাম্পিয়ন্স লিগম্যানচেস্টার সিটিম্যানসিটিলিড স্পোর্টসলেইপজিগহালান্ড