যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরি কিসিঞ্জারের মৃত্যু

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী কূটনীতিক হেনরি কিসিঞ্জার মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ১০০ বছর। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে একজন প্রভাবশালী মার্কিন কূটনীতিক হিসেবে তিনি সারা বিশ্বে আলোচিত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার ২৯ নভেম্বর রাতে কিসিঞ্জার অ্যাসোসিয়েটসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে তার মৃত্যুর খবর জানানো হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্যে নিজ বাড়িতে মারা গেছেন তিনি। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাসহ বিভিন্ন দেশে আগ্রাসন চালানোর কারণে তার নোবেল পুরস্কার জয় নিয়ে নানা মহলে বিতর্ক তৈরি হয়।

১৯২৩ সালের ২৭ মে জার্মানির এক ইহুদি পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন হেনরি কিসিঞ্জার। পরে তার পরিবার পালিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে চলে যায়। ওই শহরেই বেড়ে ওঠেন কিসিঞ্জার। এই নোবেলজয়ী মার্কিন শীর্ষ কূটনীতিক গত ২৭ মে তার শতবর্ষ উদযাপন করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সন ও জেরাল্ড ফোর্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন হেনরি কিসিঞ্জার। মার্কিন ইতিহাসে তিনিই একমাত্র কর্মকর্তা যিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রেসিডেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে উভয় দায়িত্ব পালন করেছেন।

কিসিঞ্জারের নানা বিতর্কিত ভূমিকার জন্য তাঁকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ বলে অভিযুক্ত করে থাকেন অনেকে। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিলেন সাবেক এই কূটনীতিক।