এক ম্যাচ হাতে রেখেই পাকিস্তানকে সিরিজে হারাল বাংলাদেশ

বিজ্ঞাপন

জয় দিয়েই পাকিস্তান মেয়েদের বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচেও দুর্দান্ত নিগার সুলতানা জ্যোতির দল। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সফরকারীদের ২০ রানে হারিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিজেদের করে নিল টিম টাইগ্রেস।

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামে টসে জিতে বল করার সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তান অধিনায়ক নিদা দার। আগে ব্যাটে নেমে ৬ উইকেটে ১২০ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ। জবাবে নেমে রাবেয়া-মারুফাদের তোপে নির্ধারিত ওভার শেষে ৭ উইকেটে ১০০ রান করে থামে পাকিস্তান। জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম দুটি জিতে ২-০তে সিরিজ নিশ্চিত করেছে টিম টাইগ্রেস। ২৯ অক্টোবর একই মাঠে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করার লক্ষ্যে নামবে জ্যোতি-স্বর্ণারা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে উদ্বোধনী জুটিতে ৩৪ রান তোলেন শামিমা সুলতানা ও মুর্শিদা খাতুন। ৪.৩ ওভারে ১৩ বলে ১৮ রান করে ফিরে যান শামিমা। ৭.১ ওভারে দলীয় ৫৪ রানে সোবহানা মোস্তারিকে ফিরে যান ১১ বলে ১৬ রান করে।

দুই ব্যাটারকে হারিয়ে রান তোলার গতি কমে যায় বাঘিনীদের। ১১.২ ওভারে হারায় তৃতীয় ব্যাটারকে। দলীয় ৬৭ রানে ফিরে যান ২৮ বলে ২০ রান করা ওপেনার মুর্শিদা খাতুন। পরের ওভারেই চতুর্থ ব্যাটারকে হারায় বাংলাদেশ। দলীয় ৭১ রানে ফিরে যান অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। ১৯ বলে ১০ রান করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

এরপর হাল ধরেন স্বর্ণা আক্তার ও রিতু মনি। ৩৮ রানের জুটি গড়েন তারা। ১৮.১ ওভারে দলীয় ১০৯ রানে রিতু ফিরে যান ২১ বলে ১৯ রান করে। ইনিংসের দুই বল বাকী থাকতে নাহিদা আক্তার ফিরে যান ৫ বলে ৪ রান করে। পরে শরিফা খাতুনকে নিয়ে ইনিংস শেষ করেন স্বর্ণা। ২২ বলে ২৭ রানে অপরাজিত থাকেন স্বর্ণা, শরিফা ১ বলে ১ রানে।

পাকিস্তানের হয়ে দুটি উইকেট নেন দিয়ানা বেগ। সাদিয়া ইকবালম নাশরা সান্ধু ও উম্মে হানি নেন একটি করে উইকেট।

পাকিস্তানকে ব্যাটে পাঠিয়ে শুরুতেই চেপে ধরেন টাইগ্রেস বোলাররা। ইনিংসের তৃতীয় বলেই উইকেট তুলে নেন মারুফা আক্তার। নাতালিয়া পারবেজকে ফেরান রানের খাতা খোলার আগেই। ২৮ রানে দ্বিতীয় ব্যাটারকে ফেরান রাবেয়া খাতুন। রিতু মনির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান ১৫ বলে ৯ রান করা সিদরা আমিন।

এরপর বিসমাহ মারুফ একপ্রান্ত আগলে রাখলেও ৫৯ রানের মধ্যে আরও দুই উইকেট হারায় পাকিস্তান। ৮.৬ ওভারে দলীয় ৪০ রানে রানআউট হয়ে ফেরেন ৭ বলে ৬ রান করা মুনিবা আলী। ১৩তম ওভারে ৯ বলে ৭ রান করা নিদা দারকে ফেরান রাবেয়া। পরের ওভারে দলীয় ৬১ রানে বিসমাহ’র উইকেট তুলে নেন ফাহিমা খাতুন। ৪৪ বলে ৩০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন বিসমাহ।

১৫.২ ওভারে আলিয়া রিয়াজকে ফেরান নাহিদা আক্তার। ৯ বলে ৮ রান করেন আলিয়া। ১৮.৫ ওভারে দলীয় ৯৪ রানে সপ্তম উইকেট হারায় পাকিস্তান। ১৭ বলে ১৫ রান করা ইরাম জাভেদেকে দ্বিতীয় শিকার বানান নাহিদা। এরপর দিয়ানা বেগকে নিয়ে ইনিংস শেষ করেন উম্মে হানি। ১৪ বলে ১৪ রানে অপরাজিত থাকে হানি, ৪ বলে ৩ রানে বেগ।

বাংলাদেশের হয়ে নাহিদা আক্তার ও রাবেয়া খাতুন দুটি করে উইকেট নেন। এছাড়া মারুফা আক্তার ও ফাহিমা খাতুন নেন একটি করে উইকেট।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামজ্যোতিনাহিদাপাকিস্তানবাংলাদেশবিসমাহবিসিবিলিড স্পোর্টস