কানাডার নাগরিকদের ভারতের কয়েকটি শহরে চলাচলে সতর্কতা

ভারত থেকে ৪১ জন কূটনীতিককে সরিয়ে নেওয়ার পর দেশটিতে বসবাসকারী কানাডার নাগরিকদের নতুন করে সতর্ক করলো অটোয়া। শুক্রবার কানাডার নাগরিকদের ভারতের কয়েকটি শহরে চলাচলের ওপর সতর্কতা জানিয়ে বলা হয়েছে, এই শহরগুলোতে ‘অতি সাবধানে’ চলাফেরা করুন। সতর্কতা জারি করা শহরগুলো হল চণ্ডীগড়, বেঙ্গালুরু, মুম্বাই, আসাম, মণিপুর, জম্মু ও কাশ্মীর এবং গুজরাত।

আনন্দবাজার জানিয়েছে, কানাডার তরফ থেকে ভারতে বসবাসকারী নাগরিকদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে যে, বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া যেন কেউ ওই তিন শহরে না যান। ওই তিন শহরে কোনও সমস্যায় পড়লে তাৎক্ষণিক নয়াদিল্লির দূতাবাসে যোগাযোগ করতেও বলা হয়েছে। সন্ত্রাসবাদী হামলা’র আশঙ্কা থেকেই এই পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে অটোয়া।

খালিস্তানি নেতা হরদীপ সিং নিজ্জরের হত্যাকাণ্ড নিয়ে বিতর্কের পর নতুন এই সতর্কতা কূটনৈতিক সম্পর্কের ফাটলকে আরও চওড়া করছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। নিজ্জরের হত্যায় ভারতের দিকে কানাডা অভিযোগের আঙুল তোলার পর থেকেই দু’দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে টানাপড়েন শুরু হয়।

এইদিকে ভারত থেকে ৪১ জন কূটনীতিককে সরিয়ে নেওয়ার কথা জানিয়েছে কানাডা। এই কূটনীতিকদের পরিবারের ৪২ জন সদস্যকেও সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতি জারি করে ভারত থেকে তাদের কূটনীতিকদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছে কানাডার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি বলেছেন, ভারত সরকার জানিয়েছে, ২০ অক্টোবরের মধ্যে এখান থেকে কূটনীতিকদের সরিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আর তারপরেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জোলি জানান, চণ্ডীগড়, মুম্বাই এবং বেঙ্গালুরুতে কানাডার যে উপদূতাবাস রয়েছে, সেগুলোর কাজ আপাতত স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। যেভাবে কূটনীতিকদের সরানোর বার্তা দেওয়া হয়েছে, তাতে দু’দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে আরও প্রভাব পড়তে পারে বলে জানান জোলি।

কানাডানাগরিকভারত