ভারতের রান চাকায় বাধা হল বৃষ্টি

এশিয়া কাপে সুপার ফোরে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে বৃষ্টির সম্ভাবনা ছিল। যেজন্য ম্যাচটির জন্য রিজার্ভ ডে সংযোজন করা হয় হুট করেই। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে এসে হাজির সেই বৃষ্টিও। বৃষ্টি হানায় মাঝপথে আটকে গেছে ভারতের ইনিংস।

ব্যাটে নেমে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওপেনিং জুটিতে ঝড় তুলেছিল ভারত। ডানহাতি দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও শুভমন গিল পাত্তাই দেননি পেসার শাহিন আফ্রিদি, নাসিম ও ফাহিম আশরাফকে। চার-ছয়ের ফুলঝুরিতে ১৩ ওভার ২ বলে দলীয় শতরান পূর্ণ করেন ভারত।

১৭ ও ১৮তম ওভারে দলীয় ১২৩ রানে দুই ওপেনারকে ফেরান শাদাব খান ও শাহিন শাহ আফ্রিদি। পরে রান তোলার গতি কিছুটা কমে যায় ভারতের। বৃষ্টি নামার আগে সংগ্রহ ২৪.১ ওভারে ২ উইকেটে ১৪৭ রান। ক্রিজে আছেন বিরাট কোহলি (৮) ও লোকেশ রাহুল (১৭)।

শ্রীলঙ্কার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে বল করার সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। পাওয়ার প্লে-তে সিদ্ধান্তের সঠিকতা প্রমাণ করতে পারেননি না কোনো পেসারই। সাথে ছিল পাকিস্তানের বাজে ফিল্ডিংয়ের মহড়া।

ক্যারিয়ারে ৮ম ফিফটি তুলে নেন ২৪ বর্ষী গিল। ৩৭ বলে ফিফটি করার পথে বাউন্ডারি মেরেছেন ৪টি। থেমে ছিলেন না রোহিত শর্মাও। ভারত অধিনায়ক প্রথম ওভারে ছক্কা মেরে রানের খাতা খোলেন। দেখেশুনে খেলতে থাকা রোহিত ১৩তম ওভারে এসে শাদাব খানের বলে দুটি ছক্কা হাঁকান। ৪২ বলে শাদাবকে আরও একটি ছক্কা হাঁকিয়ে ফিফটি তুলে নেন।

১৬.৪ ওভারে প্রথম সাফল্যের দেখা পায় পাকিস্তান। রোহিত শর্মাকে ফাহিম আশরাফের ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে ফেরান শাদাব খান। ৪৯ বলে ৫৬ রান করে ফেরেন ভারতীয় অধিনায়ক। পরের ওভারে দ্বিতীয় আঘাত হানেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। আঘা সালমানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন শুভমন গিল। ৫২ বলে ৫৮ রান করে যান।

বিজ্ঞাপন

এশিয়া কাপএশিয়া কাপ-২০২৩কোহলিগিলনাসিমপাকিস্তানবাবরভারতরোহিতলিড স্পোর্টস