১০ লেখক পেলেন আর্টলিট সেরা বই পুরস্কার

বিজ্ঞাপন

আর্টলিট সেরা বই পুরস্কার ২০২৩ পেলেন ১০ লেখক। গেল বুধবার রাজধানীর বর্ণালী স্টুডিওতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে লেখকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ এমপি।

বিজ্ঞাপন

২০২৩ বইমেলায় প্রকাশিত বইসমূহ থেকে বাছাইকৃত ১০টি বইয়ের লেখককে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

পুরস্কারপ্রাপ্ত ১০জন লেখক হলেন, ‘আগস্টের এক রাত’ বইয়ের জন্য সেলিনা হোসেন, ‘বিজয়ের নেপথ্যে’ বইয়ের জন্য হাসান শরীফ, ‘বিড়ালছানা ক্যাকটাস’ বইয়ের জন্য আসিফ মেহ্দী, ‘ইচ্ছার আরওতর পিনিক’ বইয়ের জন্য অরবিন্দ চক্রবর্তী, ‘ছড়াসমগ্র-১’ বইয়ের জন্য মামুন সারওয়ার, ‘বিস্মৃত সৈনিক’ বইয়ের জন্য আব্দুল্লাহ অপু, ‘গোয়েন্দা ডব্লিউ হিংটিং ছট’ বইয়ের জন্য মাসুম আওয়াল, ‘প্রেম যমুনায় মাতাল হাওয়া’ বইয়ের জন্য মাহবুব নাহিদ, ‘প্রেমিকার বঙ্কাল’ বইয়ের জন্য নিশো আল মামুন এবং জীবনের প্রথম বই শাখায় ‘গোলাপ অথবা উঁকি দেয়া চাঁদ’ বইয়ের জন্য মঞ্জুয়ারা সোনালী।

বইমেলা বিষয়ক বুলেটিন ‘ছুটির দিনের বইমেলা’ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কবি নাসির আহমেদ, কবি মোহন রায়হান, কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুল আজীজ ও কবি আসাদ কাজল। সভাপতিত্ব করেন ছুটির দিনের বইমেলা’র সম্পাদক দীপান্ত রায়হান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহযোগী প্রতিষ্ঠান আর্টলিট লিমিটেডের অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার গোলাম সারোয়ার সবুর।

বিজ্ঞাপন

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘সংখ্যা দিয়ে কখনও সাহিত্যের বিচার হয় না; বিচার হয় সাহিত্যের মান দিয়ে।’ পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখকদের অভিনন্দন জানিয়ে এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘বইমেলার বুলেটিন প্রকাশ হওয়া খুব ভালো একটি ব্যাপার এবং সেই বুলেটিনের উদ্যোগে পুরস্কার প্রদানের উদ্যোগ ভালো উদ্যোগ।’

এবার প্রথম বারের মত অনুষ্ঠিত হলো আর্টলিট সেরা বই পুরস্কার ২০২৩। লেখকদের উৎসাহ যোগানো ও পাঠকদের সামনে ভালো বইয়ের খবর ছড়িয়ে দিতে এখন থেকে প্রতি বছর এমন আয়োজন করার ঘোষণা দেন আয়োজকরা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

পুরস্কারবইবইমেলা