গাজায় ১০ জনের ৯ জনই অনাহারে

ইসরায়েলি বাহিনীর আক্রমণে বিধ্বস্ত গাজাবাসীর জন্য সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। আন্তর্জাতিক এই সংস্থার তথ্য মতে, গাজার অর্ধেক জনসংখ্যা অনাহারে রয়েছেন। এছাড়াও প্রতি ১০ জনের ৯ জনেরই প্রতিদিন না খেয়ে থাকতে হচ্ছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

রোববার ১০ ডিসেম্বর বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, জাতিসংঘের একজন ঊর্ধ্বতন ত্রাণ কর্মকর্তা সতর্ক করে জানান, গাজায় যুদ্ধ চলমান থাকায় সেখানে অর্ধেক মানুষ অনাহারে রয়েছেন।

ইউএন ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রামের ডেপুটি ডিরেক্টর কার্ল স্কাউ বলেন, গাজার মানুষদের প্রয়োজনীয় খাবারের তুলনায় সামান্য পরিমাণ খাবার অঞ্চলটিতে পৌঁছেছে। যার ফলে, প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৯ জন প্রতিদিন খাবার খেতে পারছেন না। এই পরিস্থিতিতে গাজায় নতুন করে খাদ্য সহায়তা প্রবেশ করানো বেশ ‘অসম্ভব’ বলেও মনে করছেন তিনি।

ইসরায়েল বলছে, হামাসকে নির্মূল করতে এবং ইসরায়েলি জিম্মিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে গাজায় বিমান হামলা চালিয়ে যেতে হবে। আর তাদের এই হামলা চলতেই থাকবে।

শনিবার ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল রিচার্ড হেচট বলেন, যেকোন বেসামরিক ব্যক্তির মৃত্যু আমাদের জন্যও বেদনাদায়ক কিন্তু আমাদের কিছু করার নেই। আমাদের গাজার অভ্যন্তরে যতটা সম্ভব প্রবেশ করতে হবে, এর জন্য আমাদের যা কিছু প্রয়োজন তার সবকিছুই করতে হবে।

আইডিএফ’র চিফ অফ স্টাফ হার্জি হালেভি সৈন্যদের বলেন, ‘গাজায় আরও শক্তি প্রয়োগ করতে হবে। কারণ, শুত্রুদের (হামাস) আত্মসমর্পণ অপেক্ষা করছে। তাদের নেটওয়ার্ক ভেঙ্গে পড়ছে।’

ইসরায়েল-গাজাইসরায়েলি হামলাগাজাগাজায় ইসরায়েলি হামলাগাজার মানুষ অনাহারে