ঈদে অর্থ লেনদেনে সহায়তা করবে পুলিশ

পবিত্র রমজান মাস ও ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে অর্থ লেনদেনে সহায়তা করবে পুলিশ।
রমজান ও ঈদ উপলক্ষে ক্রয়-বিক্রয়, ব্যবসা-বাণিজ্য, অর্থের লেন-দেন ও স্থানান্তর বৃদ্ধি পাবে। কোন ব্যক্তি, ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান অধিক পরিমাণ অর্থ স্থানান্তরের জন্য পুলিশের সহায়তা প্রয়োজন মনে করলে তাদেরকে সহায়তা বা এস্কর্ট প্রদান করবে ডিএমপি।

রোববার  এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) এসব কথা  জানিয়েছে। তবে এস্কর্ট প্রত্যাশী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে যানবাহনের ব্যবস্থা করতে হবে। 

বিজ্ঞপ্তিতে সহায়তা প্রত্যাশী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে সংশ্লিষ্ট থানা অথবা পুলিশ কন্ট্রোলরুমে যোগাযোগ করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়। কন্ট্রোলরুমের নম্বরসমূহ হচ্ছে- ফোন:৯৫৫৯৯৩৩, ৯৫৫১১৮৮, ৯৫১৪৪০০, ০১৭১৩-৩৯৮৩১১।

অর্থ বহনের ক্ষেত্রে বড় অংকের অর্থ একা বহন না করা, অতিরিক্ত একাধিক বিশ্বস্ত ব্যক্তিকে সাথে রাখা, অর্থ বহন সংক্রান্তে কোন তথ্য আগেই অন্যকে জানানো থেকে বিরত থাকা, পায়ে হেঁটে রিকশায় অর্থ বহনের পরিবর্তে মোটর সাইকেল কিংবা গাড়িতে অর্থ বহন করা, নগদ অর্থ বহনের পূর্বে নিশ্চিত হতে হবে দোকান বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কেউ দুষ্কৃতিকারীদের না জানিয়ে দেয়, দৈনিক নগদ অর্থ বহনের প্রয়োজন হলে মাঝে মাঝে ভিন্ন পথ ব্যবহার করা যেন দুষ্কৃতিকারীরা পূর্বেই ওত পেতে থাকার সুবিধা নিতে না পারে।

বড় নোট ব্যবহারে সচেষ্ট হওয়া এবং সম্ভব হলে টাকার নম্বর লিখে রাখা, সকল টাকা একসাথে না রেখে বিভিন্ন জায়গায় যেমন: পকেটে, ব্যাগে, সঙ্গীয় ব্যক্তির নিকট ভাগ করে রাখা, গলি পথ কিংবা নির্জন পথ ব্যবহারের পরিবর্তে অপেক্ষাকৃত ব্যস্ত সড়ক ব্যবহার করা, ট্রাফিক সিগন্যাল বা জ্যামে পড়লে অতিরিক্ত সতর্ক থাকা, সিসি ক্যামেরা আছে এমন ব্যাংকের সাথে লেনদেন করা, ব্যাংক থেকে বের হওয়ার পর বুঝতে চেষ্টা করা যে সন্দেহজনক কেউ আপনাকে অনুসরণ করছে কিনা।

বড় অংকের অর্থ পরিবহনের কাজটি রাতে না করে দিনের বেলায় সম্পন্ন করার চেষ্টা করা, এটিএম বুথে টাকা তুলতে গেলে বুথের ভেতরে কেউ আছে কিনা নিশ্চিত হয়ে নেয়াসহ কেউ থাকলে তিনি বের হবার পর আপনি বুথে প্রবেশ করার পরামর্শ দিয়েছে ডিএমপি।

ঈদ-উল-ফিতরডিএমপিপবিত্র রমজানপুলিশ