৭ মার্চ জাদুঘরের পরিদর্শন বইয়ে যা লিখলেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হলে শনিবার ৭ মার্চ ভবন উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি ওই ভবনে ৭ মার্চের উপর নির্মাণ করা জাদুঘর পরিদর্শন করেন।

জাদুঘর পরিদর্শন শেষে পরিদর্শন বইয়ে তিনি লিখেন: ‘রোকেয়া হলে ৭ মার্চ ভবনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের উপর যে জাদুঘর নির্মাণ করা হয়েছে তা পরিদর্শন করে আমি আনন্দিত, কারণ ইতিহাসকে স্মরণ করলে ভবিষৎকে সুন্দরভাবে গড়ে তোলা যায়। ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালে রেসকোর্স ময়দানে আহ্বান করেছিলেন বাঙ্গালি জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের প্রস্তুতি গ্রহণ করার জন্য। আর সেই ভাষণই প্রকৃতপক্ষে আমাদের স্বাধীনতার ঘোষণা।

ইউনেস্কো ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব ঐতিহ্য দলিল হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। বাঙালি জাতি আজ সম্মান পেয়েছে, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে এবং সকল শিক্ষক,কর্মচারী ও ছাত্রছাত্রীদের আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হিসাবে গর্ববোধ করি। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।’

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তৃতায় বলেন: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমার বাবার বিশ্ববিদ্যালয়, আমারও বিশ্ববিদ্যালয়। আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্সে ভর্তি হওয়ার কিছুদিন পর বিদেশে গেলাম। তখনই পরিবারের হত্যাকাণ্ড ঘটলো। দেশে ফিরতে পারলাম না ছয় বছর। এর আগে মাকে বলেছিলাম, এখন খুব ভালোভাবে পড়াশোনা করে মাস্টার্স ডিগ্রি নেবো। সেটা তো আর হলো না। যদিও পরে আমাকে এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনারারি ডিগ্রি দেওয়া হয়। কিন্তু পড়াশোনা করে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি নেওয়ার ইচ্ছেটা অধরাই থেকে গেলো।

তিনি বলেন: জাতির পিতার সময়ে যত আন্দোলন হয়েছে সেটার সূতিকাগার হিসেবে আন্দোলন সংগ্রাম এগিয়ে নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। সব আন্দোলন সংগ্রাম এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই শুরু। বাংলা ভাষায় কথা বলা থেকে শুরু করে স্বাধীনতা সংগ্রামের সূত্রপাত এই বিশ্ববিদ্যালয়েই।

শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন: শিক্ষার উন্নয়নের জন্য আমরা সাধ্য মতো চেষ্টা করে যাচ্ছি। শিক্ষা খাতে বাজেটে যে খরচ বরাদ্দ হয় সেটাকে আমরা ব্যয় বলি না, বলি বিনিয়োগ। যেটা দেশ গঠনে কাজে লাগবে। আমরা চাই শিক্ষক যেমন শিক্ষা দিবেন শিক্ষার্থীরাও যেন উপযুক্তভাবে শিক্ষা গ্রহণ করেন। প্রত্যেকেই শিক্ষার্থীকে নজর রাখতে হবে যেন এসব ভবনের পরিচ্ছন্নতা বজায় থাকে।

৭ মার্চ জাদুঘর৭ মার্চ ভবনজাদুঘরপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসেমি লিড